1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৯:৫৫ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
মৌলভীবাজারের ৫টি রেলওয়ে স্টেশন বন্ধ থাকায় এখন ভুতুরে বাড়ি: যাত্রী দুর্ভোগ চরমে: চুরি ও নষ্ট হচ্ছে রেলওয়ের মুল্যবান সম্পদ,নতুন বছরে দৃঢ় হোক সম্প্রীতির বন্ধন, দূর হোক সংকট: প্রধানমন্ত্রী. আজ রোববার উদযাপন হবে বই উৎসব. দুর্গম এলাকায় বিকল্প ব্যবস্থায় নতুন বই পাঠানো হবে: শিক্ষামন্ত্রী, নতুন বছরে নতুন শিক্ষাক্রম চালু হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী, নতুন আশা নিয়ে মধ্যরাতে বরণ করা হবে ২০২৩ সাল, সিডনিতে আতশবাজির মধ্য দিয়ে ‘নিউ ইয়ার’ বরণ, ইংরেজি নববর্ষ উদযাপনে পুলিশের কড়াকড়ি,আবারও প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা, সম্পাদক হলেন শ্যামল ,নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে কুয়াকাটায় পর্যটকের ঢল

৮৫ দেশে করোনার ডেলটা ধরন: স্বাস্থ্য সংস্থার সতর্কতা

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন, ২০২১
  • ১২৯ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্ক: বর্তমান প্রবণতা অব্যাহত থাকলে করোনার ডেলটা ভ্যারিয়েন্ট আগামীতে বিশ্বজুড়ে প্রধান সংক্রমণে পরিণত হবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বলছে, অন্তত ৮৫টি দেশে মহামারির এ ধরন শনাক্ত হয়েছে। বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে এ ধরনের প্রাদুর্ভাব অব্যাহত রয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৪ জুন) নিউজএইটিন ও জি নিউজ এমন খবর দিয়েছে।দুদিন আগে করোনার সাপ্তাহিক মহামারির হালনাগাদে স্বাস্থ্য বিষয়ক বিশ্বের শীর্ষ সংস্থাটি জানিয়েছিল, করোনার আলফা ধরন বিশ্বের ১৭০টি দেশ, অঞ্চল ও এলাকায়, বেটা ১১৯ দেশ, গামা ৭১টি দেশ ছড়িয়ে পড়েছে। আর ডেলটা ধরনের বিস্তার ঘটেছে ৮৫টি দেশে।

সংক্রমণ সক্ষমতার দিক থেকে ডেলটা ধরনই সবচেয়ে বেশি শক্তিশালী বলে ধারণা করা হচ্ছে। বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থা বলছে, আলফার চেয়ে ডেলটা ধরন বেশি সংক্রামক। আলফা, বেটা, গামা ও ডেল্টা—এই তিন উদ্বেগের ধরন নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।এদিকে ভারতে পরপর দুই দিন ধরে নতুন রোগী বেড়েছে। পাশাপাশি মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়েছে। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের দেওয়া তথ্যে দেখা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালের আগের ২৪ ঘণ্টায় সেখানে ৫৪ হাজার ৬৯ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। আর একই সময় আরও ১ হাজার ৩২১ জনের মৃত্যু হয়েছে।মঙ্গলবার সকালের আগের ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ৪২ হাজার ৬৪০ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছিল। যা ৯১ দিনের মধ্যে সর্বনিম্ন ছিল। তারপর থেকে গত দুই দিন ধরে শনাক্ত নতুন রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে।

বুধবার ৫০ হাজারের চেয়ে বেশি রোগী শনাক্তের পর বৃহস্পতিবার তার চেয়ে ছয় দশমিক তিন শতাংশ বেশি আক্রান্ত পাওয়া গেছে।যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলের পর কোভিড-১৯ মহামারিতে মৃতের সংখ্যায় তৃতীয় স্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে তিন লাখ ৯১ হাজার ৯৮১ জনের।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..