1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

রসুন-মরিচ দিয়ে বানিয়ে নিন সুস্বাদু এই আচার

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৪ জুলাই, ২০২৪
  • ৯১ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার :: বর্ষা হোক বা প্রচণ্ড গরম, ভাতের সঙ্গে একটু আমের টক বা কোনও আচার হলে খাবারের স্বাদ বেড়ে যায় কয়েকগুণ। রুটি বা পরোটার সঙ্গেও একটু আচার হলে মন্দ হয় না। আম-রসুনের আচার তো সকলেই খান। আমের টক-ঝাল বা মিষ্টি আচার অনেকে বাড়িতেও বানিয়ে থাকেন। এবার বাড়িতে বানিয়ে নিন রসুন-মরিচের আচার। যা যা লাগবে রসুন-মরিচের আচার বানাতে লাগবে রসুন, কাঁচা মরিচ, জিরা, তেজপাতা, কাসুন্দি, শুকনো মরিচ গুঁড়ো,পাঁচফোড়ন গুঁড়ো, চিনি, লবণ, সর্ষের তেল, তেঁতুলের ক্বাথ ও সিরকা।

রসুন-মরিচের আচার বানাতে পরিমাণ ঠিকমতো নিতে হবে। খোসা ছাড়ানো ১ কাপ রসুনের কোয়ার সঙ্গে আধা কাপ কাঁচা মরিচ বাটা নিতে হবে। জিরা, পাঁচফোড়ন গুঁড়ো ১ চামচ করে নিন। তেঁতুলের ক্বাথ ৪ চামচ ও সিরকা ২ চামচ লাগবে। যেভাবে তৈরি করবেন প্রথমে রসুন খোসা ছাড়িয়ে রসুন পরিষ্কার করে ধুয়ে শুকিয়ে নিন। রসুন থেকে কোয়াগুলো ছাড়িয়ে রাখুন। অন্যদিকে, কাঁচামরিচ ধুয়ে বেটে রাখুন ।

এবার হালকা আঁচে ফ্রাইপ্যানে সর্ষের তেল দিন। তেল গরম হলে তার মধ্যে আস্ত জিরা ও অন্তত ২টি তেজপাতা দিন। তারপর রসুন ও কাঁচামরিচ বাটা দিয়ে ভালো করে নাড়ুন।

তেলের সঙ্গে জিরা-তেজপাতার সঙ্গে রসুন ও কাঁচামরিচ বাটা যেন ভালো করে মিশে যায়। এবার এর মধ্যে তেঁতুলের ক্বাথ ও চিনি দিয়ে নাড়ুন। বেশ খানিকক্ষণ তেলের সঙ্গে রসুন ও অন্যান্য উপকরণ নাড়লে রসুন সেদ্ধ হয়ে নরম হয়ে আসবে।

রসুন সেদ্ধ হয়ে এলে ওই মিশ্রণে ২-৩ চামচ কাসুন্দি, শুকনো মরিচ গুঁড়ো, পাঁচফোড়ন গুঁড়ো, অল্প লবণ ও সিরকা দিন। সব উপকরণ একটু নাড়িয়ে নামিয়ে নিন। ব্যস, তৈরি রসুন-মরিচের আচার। এবার ঠান্ডা হলে কাচের বয়ামে ভরে রাখুন আর ভাত বা রুটির পরিবেশন করুণ।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..