1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  • E-paper
  • English Version
  • শনিবার, ২৪ জুলাই ২০২১, ০৫:১৬ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
করোনা আপডেট :  করোনায় একদিনে ১৬৬ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬৩৬৪

বর্ষায় চুল পড়ছে? ব্যবহার করুন এই ৫ তেল

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৮ জুলাই, ২০২১
  • ১৪ বার পঠিত

লাইফস্টাইল ডেস্ক : চুলে তেল ব্যবহারে চুল সুন্দর হয় একথা সবারই জানা। চুল দ্রুত লম্বা করতে চাইলে, রেশমের মতো কোমল চুল চাইলে কিংবা চুল পড়া বন্ধ করতে চাইলে নিয়মিত তেল ব্যবহার করতে হবে। তবে সবার ত্বকের ধরন এক নয়।

যে তেল আপনার চুলের জন্য উপকারী, তা আরেকজনের চুলে কাজ না-ও করতে পারে। আপনার চুলে হয়তো নারিকেল তেল খুব ভালো কাজ করছে কিন্তু আপনার বোনের চুলের জন্য উপকারী হতে পারে অলিভ অয়েল।

এদিকে বর্ষাকালে চুল পড়ে যাওয়া নিয়ে সমস্যায় ভুগে থাকেন অনেকে। স্যাঁতস্যাঁতে আবহাওয়ায় চুল পড়ার পরিমাণ বেড়ে যায়। অনেকে আছেন যারা চুলে তেল ব্যবহার করতে চান না এই সময়। কারণ বর্ষাকালে চুল ভালোভাবে শুকানোই মুশকিল, সেখানে তেল ব্যবহার তাদের কাছে বাড়তি ঝামেলা মনে হয়। তবে তেল বাদ দেওয়া চলবে না। বরং চুলের ধরণ অনুযায়ী তেল বেছে নিতে হবে। বর্ষায় আপনার চুলের ধরন বুঝে বেছে নিন এর যেকোনো একটি তেল, বর্ষায় চুল পড়ার সমস্যা থেকে মুুক্তি মিলবে সহজেই-

টি-ট্রি অয়েল

শুষ্ক চুলের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে এই তেল। পাশাপাশি স্ক্যাল্পের সংক্রমণ রোধেও সাহায্য করে। টি ট্রি অয়েলে আছে অ্যান্টি ভাইরাল এবং অ্যান্টি ব্যাকটিরিয়াল উপাদান। বর্ষাকালে যদি স্ক্যাল্পে কোনো ধরনের চুলকানি বা ইনফেকশন দেখা দেয় তাহলে তা দূর করার জন্য ব্যবহার করুন উপকারী এই তেল। নিয়মিত এই তেল ব্যবহারে স্ক্যাল্পের ইনফেকশন দূর হবে, মাথা ঠান্ডা থাকবে। সেইসঙ্গে চুল পড়ার সমস্যা তো দূর করবেই।

সরিষার তেল

এই তেল যে শুধু খাবারই সুস্বাদু করে, তা নয়। বরং মাথার ত্বক ও চুল ভালো রাখতেও সরিষার তেল ভীষণ কার্যকরী। সরিষার তেলের রয়েছে নানা ধরনের গুণ। এই তেলে রয়েছে টি-ট্রি অয়েলের মতোই অ্যান্টি ব্যাকটিরিয়াল ও অ্যান্টি ফাঙ্গাল উপাদান। বিশেষ করে বর্ষাকালে এই দুই উপাদান বেশি দরকার হয়। সরিষার তেল হালকা গরম করে চুলে মাসাজ করলে হেয়ার ফলিকল মজবুত হয়।

নারিকেল তেল

চুলের জন্য উপকারী তেলের মধ্যে নারিকেল তেলের নাম থাকবে সবার উপরে। এর ব্যবহারও সবচেয়ে বেশি। নারিকেল তেলের এই জনপ্রিয়তার কারণ হলো এর উপকারিতা। এতে আছে অপরিহার্য ফ্যাটি অ্যাসিড, প্রোটিন ইত্যাদি। এসব উপাদান মাথার ত্বকে পুষ্টি জোগানোর পাশাপাশি চুলের গোড়াও মজবুত করে। বর্ষাকালে চুলের নির্জীবভাব কাটাতে নিয়মিত নারিকেল তেল ব্যবহার করতে পারেন। সবচেয়ে ভালো হয় তেল ব্যবহারের আগে হালকা গরম করে নিতে পারলে।

অলিভ অয়েল

অলিভ অয়ের বা জলপাইয়ের তেলের রয়েছে অনেক উপকারিতা। এটি প্রয়োজনীয় প্রোটিন ও ফ্যাটি অ্যাসিড সমৃদ্ধ। অলিভ অয়েল মাথায় মাসাজ করলে, স্ক্যাল্পে পুষ্টি যায় এবং চুলের গোড়া মজবুত হয়। অলিভ অয়েল দিয়ে হট অয়েল মাসাজও করতে পারেন। এতে চুল নরম ও উজ্জ্বল হবে।

আমন্ড অয়েল

ভিটামিন ই যুক্ত আমন্ড অয়েল চুলের যত্নে ভীষণ উপকারী। এই তেল নিয়মিত স্ক্যাল্পে মাসাজ করলে হেয়ার ফলিকল মজবুত হয়। সেইসঙ্গে শুষ্ক চুলে আর্দ্রতা ফিরে আসে। ত্বকে আর্দ্রতা বজায় থাকলে চুল শুষ্ক হওয়ার ভয় থাকে না। সমপরিমাণ আমন্ড অয়েল ও অলিভ অয়েল একসঙ্গে মিশিয়ে চুলে মাসাজ করুন। এতে বেশি উপকার পাবেন।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..