1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

মৌলভীবাজারে প্রবাসীর বাড়ী জবরদখলের চেষ্টা : প্রবাসীর পরিবার নিরাপত্তা হীনতায়

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৩১ জুলাই, ২০২১
  • ২২৩২ বার পঠিত

মশাহিদ আহমদ: মৌলভীবাজারে স্বামীর বোনের মেয়ে শাফিয়া খাতুনকে স্ব-পরিবারে বাড়ীতে আশ্রয় দেওয়ায় প্রবাসীর পরিবার এখন জীবনের চরম নিরাপত্তা হীনতায় ভুগছেন। আশ্রিত পরিবারের ভয়ে বাংলাদেশে আসতে ভয় পাচ্ছেন যুক্তরাজ্য প্রবাসী মোছাঃ নিহার বেগম (৬০)। এবং জানমালের নিরাপত্তাহীনতায় বাংলাদেশে অবস্থানরত তাদের সমুহ বিয়য়াদি দেখাশুনার দায়িত্বে থাকা সামছুর রহমান ইমন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী সামছুর রহমান ইমন প্রবাসী পরিবারের পক্ষে, মৌলভীবাজার মডেল থানায় একাধিক লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। একই ভাবে ভুক্তভোগী প্রবাসী মোছাঃ নিহার বেগম প্রতিকার চেয়ে সংশি¬ষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। একাধিক হুমকিসহ বিভিন্ন অভিযোগের সরেজমিন তদন্ত শুরু করেছে মৌলভীবাজার মডেল থানার পুলিশ। অভিযোগের সত্যতা পেয়ে ভুক্তভোগী প্রবাসী মোছাঃ নিহার বেগম এর মৃতঃ স্বামী চুনু মিয়া এর বোনের মেয়ে শাফিয়া খাতুন (৫৩), মকবুল হোসেন (২৫), হোসাইন (২২) ও সামিয়া বেগম (২৮)গংদের অভিযুক্ত করে ( মৌলভীবাজার মডেল থানার নন এফ.আই.আর নং- ৯১/২০২১, তারিখ ঃ ২৪/০৭/২০২১ইং,) বিজ্ঞ আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেছে পুলিশ।

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে- মৌলভীবাজার সদর উপজেলার ৫নং আখাইলকুড়া ইউনিয়নের জগৎপুর গ্রামের যুক্তরাজ্য প্রবাসী মোছাঃ নিহার বেগম স্ব-পরিবারে দীর্ঘ ৩০ বছর যাবৎ বসবাস করে আসছেন। বাড়ীতে কেউ না থাকায় তাদের বসত বাড়ীতে শর্ত সাপেক্ষে স্বামীর বোনের মেয়ে শাফিয়া খাতুনকে উক্ত ঘরে থাকার মৌখিক অনুমতি প্রদান করেন। সর্বশেষ যুক্তরাজ্য প্রবাসী মোছাঃ নিহার বেগম স্ব-পরিবারে বাংলাদেশে আসার ইচ্ছা পোষন করলে তিনি স্বামীর বোনের মেয়ে শাফিয়া খাতুনকে বাড়ী ছেড়ে দেওয়ার জন্য বলিলে, বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি,বাংলাদেশে আসলে তাদেরকে খুন করিয়া লাশ গুম করার হুমকি, গালিগালাজ, মিথ্যা মামলায় জড়াইয়া হয়রানী, বাড়ী ছেড়ে যেতে হলে দশ লক্ষ টাকা দাবীসহ বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি প্রদর্শন করতে থাকেন শাফিয়া। তাদের এহেন কার্যক্রম এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিদের জানানোর পরও শাফিয়া খাতুনগংরা তা আমলে নেননি। এ ব্যপারে জানতে চাইলে শাফিয়া খাতুন সকল অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন- আমি আশ্রয় নেয়নি। আমার নানা বাড়ীতে দীর্ঘদিন যাবৎ রয়েছি। এখানেই বড় হয়েছি। বিষয়টি নিয়ে একাধিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। কিন্তু কোন সমাধান হয়নি।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..