1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  • E-paper
  • English Version
  • রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫৩ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
করোনা আপডেট : ২৪ ঘণ্টায় ৩৮ জনরে মৃত্যু, শনাক্ত ২ হাজার ৩২৫

পাকিস্তানের রিজওয়ানের বিশ্বরেকর্ড

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১ আগস্ট, ২০২১
  • ২৩ বার পঠিত

ক্রীড়া ডেস্ক :: আজ থেকে শুরু হলো আগস্ট মাস। অর্থাৎ চলতি বছরে শেষ হয়েছে সাত মাস, বাকি রয়েছে আরও পাঁচটি মাস। অথচ এর মধ্যেই এক বছরে সর্বোচ্চ রানের বিশ্বরেকর্ড গড়ে ফেললেন পাকিস্তানের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ রিজওয়ান।

গত বছরের ডিসেম্বর থেকেই টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে দুর্বার পাকিস্তানের রিজওয়ান। সেই ফর্ম ধরে রেখেছেন চলতি বছরেও। এ বছর খেলা ১৪ ইনিংসে ৭৫২ রান করে ফেলেছেন ২৯ বছর বয়সী রিজওয়ান। যা কি না আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এক বছরে সর্বোচ্চ রানের বিশ্বরেকর্ড।

চলতি বছর অর্থাৎ ২০২১ সালে রিজওয়ানের ১৪টি ইনিংস যথাক্রমে ১০৪*, ৫১, ৪২, ৭৪*, ০, ৭৩*, ০, ৮২*, ১৩, ৯১* ৬৩, ৩৭, ৭৬* ও ৪৬; সবমিলিয়ে ৭৫২ রান। এই ১৪ ইনিংসে দুবার শূন্য রানেও ফিরেছেন তিনি। কিন্তু বাকি ১২ ইনিংসে সাতবার করেছেন ফিফটি আর একবার পেয়েছেন সেঞ্চুরির দেখা।

পাশাপাশি ছয়টি ইনিংসে অপরাজিত থাকায় রানের গড়টাও অবিশ্বাস্য, ৯৪.০০। শুধু গড়ের হিসেবেই নয়, স্ট্রাইকরেটও স্বাস্থ্যবান রিজওয়ানের। চলতি বছর ১৪০+ স্ট্রাইকরেটে রান করে চলেছেন এ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান। যা তাকে এনে দিল বিশ্বরেকর্ডের সম্মান।

২০১৯ সালে ২০ ইনিংসে ৭৪৮ রান করেছিলেন আয়ারল্যান্ডের পল স্টারলিং। তার নামের পাশে ছিল ৮টি ফিফটি। তবে গড় ছিল ৪১.৫৫। শনিবার রাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৪৬ রান করার মাধ্যমে মাত্র ১৪ ইনিংসেই স্টারলিংয়ের রেকর্ড নিজের করে নিয়েছেন রিজওয়ান।

সব মিলিয়ে টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারে ৩২ ইনিংসে ৮ ফিফটি ও ১ সেঞ্চুরিতে ১০৬৫ রান করেছেন রিজওয়ান। তার সর্বোচ্চ সংগ্রহ অপরাজিত ১০৪, গড় ৪৮.৪০ আর ক্যারিয়ার স্ট্রাইকরেট ১২৯.০৯। এতেই বোঝা যায়, চলতি বছর নিজেকে পুরোপুরি বদলে নিয়েছেন তিনি।

রিজওয়ান-স্টারলিং ছাড়া আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে এক বছর ৭০০ রানের বেশি করার নজির রয়েছে আরও দুই ব্যাটসম্যানের। তারা হলেন আয়ারল্যান্ডের কেভিন ও’ব্রায়েন ও নেদারল্যান্ডসের ম্যাক্স ও’দাউদ। দুজনই খেলেছেন রিজওয়ানের চেয়ে বেশি ম্যাচ।

আগামী অক্টোবরে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ছাড়াও আরও একগাদা কুড়ি ওভারের ম্যাচ রয়েছে পাকিস্তানের। অর্থাৎ আরও অন্তত ৬ থেকে ১০টি ম্যাচ খেলতে পারবেন রিজওয়ান।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..