1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৪:৩১ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
মৌলভীবাজারের ৫টি রেলওয়ে স্টেশন বন্ধ থাকায় এখন ভুতুরে বাড়ি: যাত্রী দুর্ভোগ চরমে: চুরি ও নষ্ট হচ্ছে রেলওয়ের মুল্যবান সম্পদ,নতুন বছরে দৃঢ় হোক সম্প্রীতির বন্ধন, দূর হোক সংকট: প্রধানমন্ত্রী. আজ রোববার উদযাপন হবে বই উৎসব. দুর্গম এলাকায় বিকল্প ব্যবস্থায় নতুন বই পাঠানো হবে: শিক্ষামন্ত্রী, নতুন বছরে নতুন শিক্ষাক্রম চালু হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী, নতুন আশা নিয়ে মধ্যরাতে বরণ করা হবে ২০২৩ সাল, সিডনিতে আতশবাজির মধ্য দিয়ে ‘নিউ ইয়ার’ বরণ, ইংরেজি নববর্ষ উদযাপনে পুলিশের কড়াকড়ি,আবারও প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা, সম্পাদক হলেন শ্যামল ,নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে কুয়াকাটায় পর্যটকের ঢল

বন ও বন্যপ্রাণী সংরক্ষণের স্বার্থেই লাঠিটিলায় সাফারি পার্ক নির্মাণ করা হবে :: পরিবেশ ও বন মন্ত্রী

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৯ আগস্ট, ২০২১
  • ২০৪ বার পঠিত

ডেস্ক রিপোর্ট :: পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন বলেছেন, পাথারিয়া পাহাড় ও সংলগ্ন বন ও বন্যপ্রাণী সুষ্ঠুভাবে সংরক্ষণের স্বার্থেই লাঠিটিলায় সাফারি পার্ক স্থাপন করা হবে। এক্ষেত্রে এখানে বসবাসকারীদের উচ্ছেদ না করে এবং সকলের জন্য কল্যাণকর ব্যবস্থা রেখেই এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে। তিনি বলেন, এখানে সাফারি পার্ক নির্মিত হলে মানুষের কর্মসংস্থান বৃদ্ধি পাবে। মন্ত্রী বলেন, স্থানীয় জনগণ ঐক্যবদ্ধ থাকলেও পরিবেশবাদী দাবিকারী কেউ কেউ এর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে, স্থানীয় জনগণকে উস্কানি দিচ্ছে। সকলকে আশ্বস্ত করে তিনি বলেন, স্থানীয় জনগণকে সঙ্গে নিয়েই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এঁর নামে এখানে সাফারি পার্ক স্থাপন করা হবে।

মন্ত্রী আজ মৌলভীবাজারের বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলায় মৎস্য সপ্তাহ উদবোধন উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ঢাকাস্থ সরকারি বাসভবন হতে অনলাইনে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

পরিবেশমন্ত্রী বলেন, হাকালুকি হাওড়ের উন্নয়নে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় বিশেষ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। প্রকল্পের আওতায় এখানে খাল ও পর্যাপ্ত পুকুর খনন করে পানি ধারণ ক্ষমতা বাড়ানো হবে ফলে, পানির সমস্যা দূর হবে। মাছের পরিমাণ বাড়বে, মৎস্যজীবীরা মৎস্য চাষ ও করতে পারবে। মানুষের বিকল্প কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হবে। এখানের সার্বিক পরিবেশ ভালো করার জন্য স্থানীয় প্রজাতির বৃক্ষরোপণ করা হবে।

অনুষ্ঠানে জুড়ী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ মোঈদ ফারুক, বড়লেখা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ, বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী অফিসার খন্দকার মুদাচ্ছির বিন আলী, জুড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোনিয়া সুলতানা বক্তব্য রাখেন।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..