1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

দিল্লির জয়ে প্লে-অফের পথ কঠিন হলো মুম্বাইয়ের

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২ অক্টোবর, ২০২১
  • ১৬৪ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্ক: আইপিএলের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স। তবে এবারের আসরে রোহিত শর্মাদের প্লে-অফে খেলা নিয়ে শঙ্কা জন্মেছে। বিদায় নেয়নি, তবে দিল্লি ক্যাপিটালসের কাছে হেরে পয়েন্ট টেবিলের পরিসংখ্যানে তাদের শীর্ষ চারে থাকা কঠিন হয়ে উঠেছে। আজ (শনিবার) শারজার ম্যাচে ঋষভ পান্তদের কাছে ৪ উইকেটে হেরেছে রোহিতরা। শারজার স্লো উইকেটে মুম্বাইয়ের নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেটে করা ১২৯ রানই কঠিন হয়ে উঠেছিল দিল্লির জন্য। রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ছক্কায় ৬ উইকেট হারিয়ে ৫ বল আগে জয় নিশ্চিত করে দিল্লি। এই জয়ে ১২ ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানেই রয়েছে দিল্লি। বিপরীতে মুম্বাইয়ের প্লে-অফে জায়গা পাওয়াটা কঠিন হয়ে উঠেছে। সুযোগ এখনও আছে, তবে ‘যদি-কিন্তু’র ব্যাপার রয়েছে। ১২ ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের পয়েন্ট ১০। সমান খেলায় কলকাতা নাইট রাইডার্স (০.৩০) ও পাঞ্জাব কিংসের (-০.২৩) পয়েন্টও সমান। তবে নেট রানরেটে তারা এগিয়ে। মুম্বাই (-০.৪৫) রয়েছে ষষ্ঠ স্থানে। এখন শেষ চারে থাকতে হলে নেট রানরেট বাড়ানোর সঙ্গে বাকি থাকা ম্যাচগুলো জিততে হবে এবং অন্য দলগুলোর হার প্রত্যাশা করতে হবে মুম্বাইকে।

 

শারজার পিচে ব্যাটসম্যানরা খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় মুম্বাই। ৮ রানে হারায় অধিনায়ক রোহিতের উইকেট (৭)। খানিক পর কুইন্টন ডি ককও (১৯) ফিরে যান প্যাভিলিয়নে। সূর্যকুমার যাদব খেলেছেন সর্বোচ্চ ৩৩ রানের ইনিংস। ২৬ বলের ইনিংসটি সাজান ২ চার ও সমান ছক্কায়। কাইরন পোলার্ড ব্যর্থ, আউট হয়েছেন ৬ রানে। হার্দিক পান্ডিয়া ১৮ বলে করেন ১৭ রান। দিল্লির সবচেয়ে সফল বোলার আভেশ খান। ৪ ওভারে মাত্র ১৫ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। আর ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা অক্ষর প্যাটেল ৪ ওভারে ২১ দিয়ে নিয়েছেন ৩ উইকেট। ১৩০ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ৩০ রানে শিখর ধাওয়ান (৮), পৃথ্বি শ (৬) ও স্টিভেন স্মিথের (৯) উইকেট হারিয়ে চাপে দিল্লি। এরপর পান্তের ২২ বলে ২৬ রানের ইনিংসে পথে ফেরে তারা। কিন্তু অক্ষর (৯) ও শিমরন হেটমায়ারের (১৫) বিদায়ে আবারও শঙ্কা জন্মে। যদিও শ্রেয়াস আইয়ার (৩৩*) ও অশ্বিনের (২০*) ব্যাটে জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছেড়েছে দিল্লি। মুম্বাইয়ের ট্রেন্ট বোল্ট, জয়ন্ত যাদব, ক্রুনাল পান্ডিয়া, জসপ্রিত বুমরা ও নাথান কোল্টার-নাইল প্রত্যেকে নিয়েছেন একটি করে উইকেট।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..