1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

শ্রীমঙ্গলে চা বিজ্ঞানীর বাসায় ফুটল পাঁচটি নাইট কুইন

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১২ অক্টোবর, ২০২১
  • ২১২ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্ক:‘নাইট কুইন’ নাম শুনে সহজইে অনুমান করা যায় যে রাতের আঁধার আলো করে ফোটে ফুলটি। আর এজন্যই একে বলা হয় ‘রাতের রানী’। এছাড়া নাইট কুইনকে বলা হয় সৌভাগ্যের প্রতীক। মনে করা হয়, যে বাড়িতে ফুলটি ফোটে সে বাড়িতে সৌভাগ্য বয়ে আনে। নাইট কুইন ফুলটি নিশিপদ্ম, নিশিগন্ধা বা ব্রহ্মকমল নামেও পরিচিত। অনেক দেশে ফুলটি ‘বেথেলহ্যাম ফ্লাওয়ার’ নামেও সমাদৃত।  ফুলটি সৌভাগ্য ও পবিত্রতার প্রতীক হিসাবেও পরিগন্য।

গাছটরি বৈজ্ঞানকি নাম Epiphyllum Oxypetalum। ইংরেজিতে Dutchmans Pipe ও Queen of The Night হিসেবে পরিচিত। ক্যাকটাস জাতীয় এ উদ্ভিদের আদি নিবাস মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণাঞ্চল ও মেক্সিকোতে। এই ফুলটি বর্তমানকালে অতি দূর্লভ না হলেও কিছুটা দূর্লভ ও বটে। অনেক ধৈর্য, পরিশ্রম এবং অপেক্ষার পরই নাইট কুইন ফুল ফোটা দেখার সৌভাগ্য হয়; তাও আবার বেশি সময়ের জন্যও নয়। যে রাতে ফুলটি ফোটে আবার সে রাতেই মিলিয়ে যায়।

সোমবার রাতে বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউটের ঊর্ধŸতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. মোহাম্মদ মাসুদ রানা-র শ্রীমঙ্গলস্থ সরকারী বাসভবনে টবের মধ্যে একটি গাছে একসাথে ৫ টি নাইট কুইন ফুল ফোটে। তাঁর সাথে আলাপচারিতায় জানা যায় যে, নাইট কুইন ফুলটি মূলত: বর্ষার ফুল এবং অন্যান্য গাছ থেকে এ ফুলগাছের আলাদা কিছু বিশেষ বৈশিষ্ট্য রয়েছে। সাধারনত নাইট কুইনের চারা গাছ থেকে ফুল ফুটতে চার থেকে সাত বছর সময় লাগে। কিন্তু, বিশেষ পরিচর্যার কারনে তাঁর এই চারাগাছে দেড় বছরের মধ্যেই ফুল এসেছে। এই গাছ কড়া রোদে না রেখে একটু ছায়ায় রাখলেই ভাল। গাছের পানির চাহিদা কম, কিন্তু পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা খুবই ভাল হতে হবে।

 

তিনি বলেন, উপযুক্ত মাটি নির্বাচন করে টবের মধ্যে তিনি শুধুমাত্র একটি পাতা রোপন করেছিলেন। এর পরবর্তী পরির্চযা মূলত: তার সহধর্মিনী ও কন্যাই করেছেন। ফুল ফোটার আগে গাছে প্রথমে গুটি গুটি কলি ধরে। এরপর কলি বড় হয়ে প্রায় ১৪ থেকে ১৫ দিনের মধ্যে ফুল ফোটার উপযুক্ত হয়ে ওঠে। ফুলটির বোঁটা তুলনামূলক বেশ লম্বা হওয়ায় কলিসহ বোঁটাটি অনেকটা সাপের ফণার মত দেখায়। নাইট কুইন ফুল দেখতে সাদা রঙের পদ্ম ফুলের মতো। তিনি জানান, তাঁর গাছটিতে প্রথমে ২০-২১ টি কলি এসেছিল। গাছ ছোট হওয়ায় ৫ টি কলি ছাড়া বাকীগুলি কয়েকদিনের মধ্যেই ঝরে পড়ে। সোমবার দুপুরেই তিনি বুঝতে পারেন যে রাত্রিতে কলিগুলি ফুটবে এবং সন্ধ্যা হতেই পরিবারের সকলেই অপেক্ষা করতে থাকেন কখন ফুলগুলি ফুটবে। রাত সাড়ে ৮টার দিকে সবগুলি কলি একত্রে ফোঁটা শুরু করে এবং রাত সাড়ে ৯টার দিকে সবগুলি ফুল মোটামুটি ভালভাবেই প্রস্ফুটিত হয়। ফুলগুলি ফোটার পর হতে এর আশপাশ সুমষ্টি গন্ধে ভরে যায়। নাইট কুইন ফুল দেখার জন্য সবচেয়ে ভাল সময় রাত বারোটা থেকে দুইটা। ভোররাত পর্যন্ত ফুলগুলি প্রস্ফুটিত থাকে। কিন্তু সকাল হলেই আর ফুলকে দেখা যায় না। একেবারে কুঁকড়ে বুজে যায়। আর এজন্যেই একে রাতের রানীও বলা হয়ে থাকে।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..