1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

বড়লেখায় মুমূর্ষু কুকুরকে বাঁচাতে ইউপি চেয়ারম্যানের চেষ্টা, তারে জড়ানো দুই কুকুর উদ্ধারে এলো ফায়ার সার্ভিস

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৬৭৬ বার পঠিত

বড়লেখা প্রতিনিধি: বড়লেখার কাঠালতলী এলাকায় শান্ত স্বভাবের ৮-১০টি বেওয়ারিশ কুকুর রাত জেগে বিনা পয়সায় এলাকা পাহারা দেয়। দুর্বৃত্তরা খাবারের সাথে বিষ মিশিয়ে এ কুকুরগুলোকে মেরে ফেলতে তৎপর হয়ে উঠেছে। ইতিমধ্যে একটি কুকুর মারা গেছে। এলাকার সাইডিংবাজারে বৃহস্পতিবার রাত দেড়টায় রাস্তার পাশে তিনটি কুকুর ছটফট করছিল। রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলেন একজন পথচারী। তিনি কুকুরগুলোকে দেখে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এনাম উদ্দিনকে জানান। খবর পেয়ে দ্রæত ঘটনাস্থলে ছুটে যান ইউপি চেয়ারম্যান।

এরমধ্যে ছটফট করতে করতে একটি কুকুর ঝোপের পাশের তারকাটায় গিয়ে আটকা পড়ে। অন্য দুটি কুকুরও উঠে দাঁড়ায়। তারে আটকা পড়া কুকুরটি উদ্ধার করতে ইউপি চেয়ারম্যান কল দেন ফায়ার সার্ভিসে। খবর পেয়ে ছুটে আসেন ফায়ার সার্ভিসের লোকজন। ততক্ষণেই স্থানীয়দের সহায়তায় চেয়ারম্যান কুকুরটিকে উদ্ধার করেন। শুক্রবার সকালে কুকুরটি অনেকটা সুস্থ হয়ে উঠে দাঁড়িয়েছে। এই ঘটনাটি ঘটেছে মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলার দক্ষিণভাগ উত্তর ইউনিয়নের কাঁঠালতলী সাইডিংবাজার এলাকায়।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার রাত দেড়টার দিকে উপজেলার কাঁঠালতলী সাইডিংবাজার এলাকায় এক পথচারী রাস্তার পাশে তিনটি কুকুরকে ছটফট করতে দেখেন। বিষয়টি তিনি মুঠোফোনে দক্ষিণভাগ উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এনাম উদ্দিনকে জানালে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন তিনি। এসেই দেখেন একটি কুকুর ঝোপের মধ্যে তারে আটকে পড়ে ছটফট করছে। অন্য দুটি কুকুর উঠে দাঁড়িয়েছে। তিনি কুকুরটিকে বাঁচাতে কল দেন প্রাণিসম্পদ অফিসে। ব্যর্থ হয়ে পরে কল দেন ফায়ার সার্ভিসে। রাত প্রায় চারটার দিকে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ঘটনাস্থল আসে। এরমধ্যে স্থানীয়দের সহায়তায় চেয়ারম্যান তারে আটকে থাকা কুকুরটিকে উদ্ধার করে কাঠালতলী পোস্ট অফিসের সামনে এনে রাখেন। রাতভর চেয়ারম্যান ও স্থানীয়দের চেষ্টায় শুক্রবার সকালে কুকুরটি কিছুটা সুস্থ হয়ে উঠে দাঁড়ায়।

এলাকার বাসিন্দা সাঈব আহমদ ইয়াছের বলেন, কাঁঠালতলী এলাকায় ৮ থেকে ১০টি কুকুর রয়েছে যারা অত্যন্ত শান্ত স্বভাবের। রাতে কুকুরগুলো দল বেঁধে ঘুরে বেড়ায়, এলাকা পাহারা দেয়। এরমধ্যে কয়েকটি কুকুরকে কে বা কারা বিষ খাইয়েছে। কাল রাতে আরও কয়েকটি কুকুরকে বিষ খাওয়ানো হয়েছে। এরমধ্যে তিনটি কুকুর রাস্তার পাশে ছটফট করছিল। এরমধ্যে কেউ একজন ফোন করে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানকে। বিষয়টি জানার পর তিনি রাতে এসে একটি কুকুরকে বাঁচাতে চেষ্টা করেন। রাতে আমিও কুকুরগুলোকে দেখেছি রাস্তার পাশে যন্ত্রণায় ছটফট করছে। এরমধ্যে দুটি মোটামুটি সুস্থ হলেও এটি হয়তো মারা যাবে। কারণ এর আগে আরও একটি কুকুর মারা গেছে। এটিকেও বিষ খাওয়ানো হয়েছে বলে শুনছি এখন। এটি মরে এলাকায় দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। এই প্রাণীগুলোর কী অপরাধ ছিল জানিনা। যে বা যারা এই অবলা প্রাণীগুলোকে বিষ খাইয়েছে, তারা কাজটি মোটেও ঠিক করেনি।

দক্ষিণভাগ উত্তর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এনাম উদ্দিন বলেন, রাত দেড়টার দিকে ঘুমিয়েছিলাম। অপিরিচত কেউ একজন ফোন করে জানায় যে কাঠালতলী এলাকায় রাস্তার পাশে তিনটি কুকুরকে কে বা কারা বিষ খাইয়েছে। বিষয়টি শুনেই ছুটে আসি। এসে দেখি দুটি কুকুর মোটামুটি স্বাভাবিক হয়েছে। এরমধ্যে একটি কুকুর হয়তো তীব্র যন্ত্রণায় ঝোপের মধ্যে লুকিয়েছিল। এটিকে বাঁচাতে প্রথমে প্রাণিসম্পদ অফিসে। পরে ফায়ার সার্ভিসে কল দিই। ফায়ার সার্ভিসের লোকজন আসার আগেই আমি স্থানীয়দের সহায়তায় একটি কুকুরকে উদ্ধার করেছি। তিনি বলেন, কুকুরগুলোর যন্ত্রণা দেখে নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারিনি। খুব কষ্ট লেগেছে। এটিকে বাঁচানোর চেষ্টা করেছি। সবার চেষ্টায় সকালে কুকুরটি উঠে দাঁড়িয়েছে। সকালে প্রাণিসম্পদ অফিস থেকেও লোকজন এসেছেন।

বড়লেখা ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার শামীম মোল্লা বলেন, রাতে দক্ষিণভাগ উত্তর ইউপি চেয়ারম্যান এনাম উদ্দিন জানান তিনটি কুকুরকে কে বা কারা বিষ খাইয়েছে। এরমধ্যে একটি কুকুর তারে আটকা পড়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখি স্থানীয়রা কুকুরটিকে উদ্ধার করেছেন।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..