1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  • E-paper
  • English Version
  • মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ০৪:৩৬ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
 করোনা আপডেট : করোনায় আরও ৩২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৬৯৮  

আত্মগোপনে মামুনুল হক, খোঁজ পেলেই গ্রেপ্তার

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১
  • ২৬ বার পঠিত

ডেস্ক রিপোর্ট : সমালোচিত হেফাজত নেতা মামুনুল হক গত কয়েকদিন ধরে আত্মগোপনে। পুলিশ বলছে, তাকে খোঁজা হচ্ছে। আর তার সংগঠনের নেতারা বলছেন, ব্যক্তির দায় সংগঠনের নয়। ব্যক্তি জীবনে কোন আইনবিরোধী কাজ করলে আইনগতভাবে মোকাবেলা করবেন তিনিই।

রিসোর্ট কাণ্ড, সেখান থেকে ছিনিয়ে নেয়া। ঘটনার ব্যাপারে হেফাজত ইসলামের নেতাদের অবস্থান। সবশেষ মামনুলের ভিডিও বার্তা।

মামুনুল হককে নিয়ে সরব থাকলেও ভিডিও বার্তার পর গেলো কয়েকদিন ধরে হেফাজত ইসলাম সাংগঠনিকভাবে আর কিছু বলছে না। সবশেষ দেয়া এক বিবৃতিতেও মামনুলের বিষয়টি উল্লেখ নেই।

হেফাজত ইসলামের দুজন নেতার কাছে মামুনুল সম্পর্কে জানতে চাইলে এই প্রতিবেদকের কাছে তুলে ধরেন তাদের মতামত।

হেফাজতে ইসলামের সহকারী মহাসচিব সাখাওয়াত হোসেন রাজী বলেন, ‘শরীয়তের আইন লঙ্ঘন করে মামুনুল কিছু করেছে কি-না, হেফাজত এটা নিশ্চিত হয়েছে এমন কাজ মামুনুলের দ্বারা হয়নি। যদি প্রচলিত কোন আইনে ব্যত্যয় ঘটে মামুনুলের কাজে, ওই বিষয়টা হেফাজতের দেখার বিষয় না। ব্যক্তির ওপর কোন প্রশ্ন আসলে, সেটার উত্তর সে ব্যক্তিগতভাবে দিবে।’

হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমীর আহমদ আব্দুল কাদের বলেন, ‘ব্যক্তিগত বিষয়ের ব্যাপারে কোন মামলা হলে সেটা তো হেফাজত দেখবে না। এটার উত্তর তিনিই দিবেন। এটা নিয়ে আমাদের কোন কথা নাই।’

সংগঠনটির সাবেক যুগ্ম মহাসচিব ও শফীপন্থী বলে পরিচিত মাঈনুদ্দিন রুহি বলছেন, মামনুকে বহিস্কার না করলে পুরো সংগঠন সমালোচিত হবে। তিনি বলেন, ‘মামুনুল পরিত্যক্ত ও বিকারগ্রস্ত হয়ে গেছে। অসুস্থ মানসিকতার কোন মানুষকে কেউ সমর্থন দেয় না। হেফাজতে ইসলাম ও কওমি মাদ্রাসা তাকে বয়কট করে হেফাজতে ইসলামের ও কওমি মাদ্রাসার মান সম্মান রক্ষা করা উচিত।’

পুলিশ বলছে, সোনারগাঁও আটকের পর ছিনিয়ে নেয়া ছাড়া সেখানেও ব্যাপক তাণ্ডব চালানো হয়। এসব ঘটনায় মামুনুলের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ পাওয়ায় দুটি এবং মোদির সফর ঘিরে বায়তুল মোকাররম মসজিদে ভাঙচুরে সংশ্লিষ্টতায় মামলা হয়েছে। খোঁজ পাওয়া মাত্রই তাকে গ্রেপ্তার করা হবে।

ডিএমপির মতিঝিল বিভাগের ডিসি সৈয়দ নুরুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা অভিযান চালাচ্ছি কিন্তু সবাই পলাতক।’

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম জানান, ‘৪০ জনের মতো গ্রেপ্তার হয়েছে, আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে। যেহেতু তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে, তাকে আইনের আওতায় আনা হবে।’

সরকারের নানা ইস্যুতে গেল কয়েক বছর ধরেই আলোচনা বা সমালোচনায় থাকা বিতর্কিত বক্তা মামনুলের জগত ক্রমশও ছোট হচ্ছে বলেও মত হেফাজত নেতাদের।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..