1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ১০:৩৮ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
জাতীয় : কোস্টগার্ডের প্রয়োজনে যা দরকার তা করবে সরকার : প্রধানমন্ত্রী

শিল্পী সমিতির নির্বাচন থেকে দূরে যেসব তারকা

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী, ২০২২
  • ১৩৪ বার পঠিত

বিনোদন প্রতিবেদক: ঘাড়ে নিঃশ্বাস ছাড়ছে বাংলাদেশ শিল্পী সমিতির ১৭তম নির্বাচন। আর তিন দিন বাদেই আগামী ২৮ জানুয়ারি ভোট। সেই লক্ষ্যে জোর প্রচারণা চালাচ্ছেন শক্তিশালী দুটি প্যানেল। একটি মিশা সওদাগর ও জায়েদ খানদের এবং অন্যটি ইলিয়াস কাঞ্চন ও নিপুণদের। ঢালিউডের জনপ্রিয় তারকাদের প্রায় সকলেই এবারের নির্বাচনে শামিল। কেউ হয়েছেন প্রার্থী, কেউ বা কাজ করছেন কারও সমর্থনে। কিন্তু এমন কয়েকজন বড় তারকাও রয়েছেন, যারা কোনো দলের প্রার্থীও হননি এবং কারও পক্ষে কাজও করছেন না। জেনে নেই তাদের সম্পর্কে।

শাকিব খান

ঢালিউড কিং শাকিব খান ২০১১-১৫ এবং ২০১৫-১৭ দুই মেয়াদের নির্বাচনে জয়ী হয়ে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতির দায়িত্ব সামলেছিলেন। কিন্তু ২০১৭-১৯ এবং ২০১৯-২১ মেয়াদের নির্বাচনগুলোতে তার দেখা মেলেনি। এবারও তিনি নির্বাচনের ধারেকাছেও নেই। যদিও গত বছরের সেপ্টেম্বরে গুঞ্জন উঠেছিল, এবারের নির্বাচনে চিত্রনায়িকা নিপুণের প্যানেল থেকে সভাপতি পদে লড়বেন শাকিব খান। কিন্তু কয়েকদিন পরই এই গুঞ্জনকে ফুঁ দিয়ে উড়িয়ে দেন বাংলাদেশি কিং খান। সাফ জানিয়ে দেন, নির্বাচন নিয়ে কোনো আগ্রহই তার নেই। শাকিব খান গত ডিসেম্বর থেকে রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানকার নাগরিকত্ব পাওয়ার জন্য তিনি আবেদন করেছেন। তারই শর্ত সাপেক্ষে আগামী ছয় মাস অভিনেতাকে মার্কিন মুলকে থাকতে হবে। তাই সেখানকার নাগরিকত্ব পেতে এখনো জো বাইডেনদের দেশেই রয়েছেন শাকিব।

চিত্রনায়িকা পপি

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই নায়িকা ২০১৭-১৯ মেয়াদের নির্বাচনে মিশা-জায়েদ প্যানেল থেকে কার্যনির্বাহী সদস্য পদে জিতেছিলেন। কিন্তু কিছুদিন পরই নিজ প্যানেলের কর্তাদের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তুলে কমিটি থেকে বেরিয়ে আসেন। এরপর ২০১৯-২১ নির্বাচনে তিনি কোনো দলের প্রার্থী হন, তবে চিত্রনায়িকা মৌসুমীর সমর্থনে কাজ করেছিলেন। গতবার স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে সভাপতি পদে লড়েছিলেন মৌসুমী। এই নায়িকা এবার মিশা-জায়েদদের পক্ষেই নির্বাচন করছেন। কিন্তু দেখা নেই পপির। তিনি দেড় বছরেরও বেশি সময় ধরে লাপাত্তা।

চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা

জনপ্রিয় এই নায়িকার শিল্পী সমিতির নির্বাচন নিয়ে বরাবরই তেমন কোনো আগ্রহ ছিল না। অনেক আগে শাকিব খানের সমর্থনে কাজ করেছিলেন। এছাড়া ২০১৭-১৯ মেয়াদের নির্বাচনে বন্ধু ফেরদৌসকে সমর্থনও দিয়েছিলেন। কিন্তু গতবার এবং এবার পূর্ণিমার ছায়াও পড়েনি এফডিসিতে। এই নায়িকা আবার সম্প্রতি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। বর্তমানে তিনি রয়েছেন নিজ গৃহে নিভৃতবাসে। করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় শনিবার ‘বাবিসাস অ্যাওয়ার্ড ২০১৯-২০-২১’ আয়োজনে যেতে পারেননি পূর্ণিমা। চলচ্চিত্রে অবদানের জন্য সেখানে তার বিশেষ সম্মাননা পাওয়ার কথা ছিল। এদিকে, আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনি এবার ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল থেকে কার্যনির্বাহী সদস্য পদে মনোনয়ন কিনেছিলেন। জমাও দেন। চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকায় এখনও তার নাম রয়েছে। কিন্তু কয়েকদিন আগে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন পরীমনি। কারণ, তিনি মা হতে চলেছেন।

অভিনেত্রী জানান, ‘নির্বাচন করতে হলে তো মিনিমাম সময় দেওয়া লাগে, কিন্তু সেই সময়টা আমি দিতে পারব না। ডাক্তার আমাকে পরিপূর্ণ বিশ্রামে থাকতে বলেছেন। তাই অনাগত সন্তানের কথা মাথায় রেখে আমি নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছি। শুটিংও বন্ধ রেখেছি।’

এছাড়া চিত্রনায়ক আমিন খান, আরিফিন শুভ, সিয়াম আহমেদ, জিয়াউল রোশান, চিত্রনায়িকা অপু বিশ্বাস, শবনম বুবলী, মাহিয়া মাহি, বিদ্যা সিনহা সাহা মিম, রেসি, আঁচল আঁখি, ইয়ামিন হক ববির মতো তারকারা এবারের নির্বাচনে প্রার্থী হওয়া দূরে থাক, কারও সমর্থনে কাজও করছে না।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..