1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১২:১৫ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

গুজরাটের অবিশ্বাস্য জয়

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২২
  • ৩৬৪ বার পঠিত

ক্রীড়া ডেস্ক :: নাটকীয় ম্যাচে পাঞ্জাব কিংসকে ৬ উইকেটে পরাজিত করেছে গুজরাট টাইটান্স। ম্যাচ জিততে শেষ ওভারে গুজরাটের প্রয়োজন ১৮ রান। প্রথম চার বলে আসে মাত্র ৬ রান, শেষ দুই বলে প্রয়োজন ১২ রান। বল হাতে ওডিন স্মিথ হয়তো ভাবেননি শেষ দুই বলে ব্যাটার তেওয়াতিয়া তার কী হাল করতে চলেছে।
অবিশ্বাস্য হলেও, তেওয়াতিয়া দুই বলে দুটি ওভার বাউন্ডারি হাঁকিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন। ৪ রানের জন্য সেঞ্চুরির আক্ষেপ নিয়ে মাঠ ছাড়েন ওপেনার শুভমান গিল।

এর আগে ১৯০ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ম্যাথু ওয়েডের উইকেট হারায় গুজরাট টাইটানস। ৭ বলে ৬ রান করে কাগিসো রাবাদার শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি। এরপর বাকি সময়ে পাঞ্জাবের বোলারদের হতাশায় ডুবিয়েছে শুভমান গিল ও সাই সুদর্শন। দ্বিতীয় উইকেট ‍জুটিতে দু’জনের ব্যাট থেকে আসে রেকর্ড ১০১ রানের পার্টনারশিপ।

৩০ বলে ৩৫ রানের ইনিংস খেলে সুদর্শন রাহুল চাহারের শিকার হলেও একপ্রান্ত আগলে ধরে ঝড়ো ব্যাটিং চালিয়ে যান গিল। ফিফটি তুলে হাটতে থাকেন সেঞ্চুরির পথে। ধীরে ধীরে গুজরাটও এগোতে থাকে জয়ের পথে। তবে শেষ দিকে হার্দিক পান্ডিয়ার সঙ্গে তার মন্থর ব্যাটিংয়ে বলের সঙ্গে রানের ব্যবধানটা বেড়ে যেতে থাকে।

এর মধ্যে ১৯তম ওভারের পঞ্চম বলে রাবাদাকে বলে ক্যাচ তুলে দিয়ে ৪ রানের আক্ষেপ নিয়ে মাঠ ছাড়েন গিল। ১১ চার ও ১ ছক্কার মারে ৫৯ বলে তার ব্যাট থেকে আসে ৯৬ রান। দুই বল পরে রান আউটের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন পান্ডিয়া। তার ব্যাট থেকে ১৮ বলে ২৭ রান। ততক্ষণে ম্যাচ পাঞ্জাবের পক্ষেই চলে যায়। তবে শেষ দিকে রাহুল তেওয়াতিয়া চমক দেখিয়ে নিশ্চিত হারা ম্যাচে জয় এনে দেন।

এর আগে টস জিতে আগে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় গুজরাট টাইটান্স। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই পাঞ্জাব কিংসের অধিনায়ক মায়াঙ্ক আগারওয়ালকে শিকার করেন গুজরাটের অধিনায়ক হার্দিক পান্ডিয়া। দুই বাউন্ডারিতে ৮ বলে ৮ রান করে বিদায় নেন জনি বেয়ারস্টো। ৩৪ রানে ২ উইকেট হারায় পাঞ্জাব।

তৃতীয় উইকেটে ৫২ রানের জুটি গড়েন শিখর ধাওয়ান ও লিয়াম লিভিংস্টোন। একপ্রান্তে ঝড় তোলেন লিভিংস্টোন ও অন্যপ্রান্তে সঙ্গ দেন ধাওয়ান। ৩০ বলে ৩৫ রান রশিদ খানের বলে ধাওয়ান আউট হলে ভাঙে এই জুটি। জিতেশ শর্মা নেমেই ছোট ঝড় তুলে সাজঘরে ফেরেন। এক ছক্কা ও দুই চারে জিতেশ করেন ১১ বলে ২৩ রান। পরের বলেই বিদায় নেন ওডেন স্মিথও।

শাহরুখ খান ৮ বলে ১৫ রান ও রাহুল চাহার করেন ১৪ বলে ২২ রান। ইনিংসে সর্বোচ্চ ৬৭ রান করেন লিভিংস্টোন। এই ইংলিশ ব্যাটারের উইলো থেকে আসে সাতটি চার ও চারটি ছক্কা। মাত্র ২৭ বলে ২৩৪.০৪ স্ট্রাইকরেটে এই ইনিংস খেলেন লিভিংস্টোন। নির্ধারিত ২০ ওভারে পাঞ্জাব সংগ্রহ করে ৯ উইকেটে ১৮৯ রান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

পাঞ্জাব কিংস ১৮৯/৯ (২০ ওভার)
লিভিংস্টোন ৬৭, ধাওয়ান ৩৫, জিতেশ ২৩, রাহুল চাহার ২২;
রশিদ ৩/২২, দর্শন ২/৩৭।

গুজরাট টাইটান্স ১৯০/৪ (২০ ওভার)
গিল ৯৬, সুদর্শন ৩৫, হার্দিক ২৭, তেভাটিয়া ১৩*;
রাবাদা ২/৩৫।

 

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..