1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:৪২ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

ভারতে দৈনিক মৃত্যু বেড়ে হতে পারে ৫হাজার: গবেষণা

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২১
  • ২৩৮ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাস সংক্রমণের ‘সুনামি’তে ভারতের চিকিৎসা ব্যবস্থা প্রায় ভেঙে পড়তে বসেছে। দেশটিতে ‘সার্স-কভ-২’ ভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ ও মৃত্যু। প্রতিদিনই ভাঙছে মৃত্যু ও শনাক্তের রেকর্ড মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে করোনায় ভারতে দৈনিক মৃতের সংখ্যা বেড়ে হতে পারে সাড়ে পাঁচ হাজার। ফলে, পয়লা আগস্টের মধ্যে দেশে করোনায় মৃত্যু হতে পারে আরও প্রায় তিন লাখ ৩০ হাজার মানুষের।এমন উদ্বেগজনক  খবর দিয়েছে ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ইনস্টিটিউট ফর হেল্থ মেট্রিক্স অ্যান্ড ইভ্যালুয়েশন (আইএইচএমই)  এর সাম্প্রতিক এক গবেষণায়।

প্রায় একই রকমের ইঙ্গিত মিলেছে মিশিগান বিশ্ববিদ্যালয়েরও একটি গবেষণায়। তাতে বলা হয়েছে, মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে করোনায় ভারতে দৈনিক মৃতের সংখ্যা বেড়ে হতে পারে সাড়ে চার হাজার। আর জুলাইয়ের শেষে সংক্রমণের সংখ্যা বাড়বে আরও আট থেকে দশ লাখ।ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের আইএইচএমই এর ‘কোভিড-১৯ প্রোজেকশন্স ইন ইন্ডিয়া, ২০২১’ শীর্ষক গবেষণাপত্রের দাবি, এপ্রিলের মাঝামাঝি কোভিডই ভারতে সবচেয়ে বেশি মানুষের রোগাক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর পঞ্চম কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।গবেষণায় বলা হয়েছে, ১২ এপ্রিল থেকে ১ আগস্ট পর্যন্ত ভারতে করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় তরঙ্গ আরও ভয়াবহ হয়ে উঠতে চলেছে। তার ফলে মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহেই দেশটিতে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা সাড়ে ৫ হাজারেরও বেশি হবে। ভয়ঙ্করভাবে বেড়ে যাবে সংক্রমণের হারও। ফলে ১২ এপ্রিল থেকে ১ আগস্টের মধ্যে ভারতে করোনায় মৃতের সংখ্যা আরও প্রায় ৩ লাখ ৩০ হাজার বাড়বে। যার পরিণতিতে জুলাইয়ের শেষে করোনায় মৃতের সংখ্যা হবে ৬ লাখ ৬৫ হাজারের কিছু বেশি।

তবে মানুষ যদি মাস্ক পরার ব্যাপারে আগ্রহী হয়ে ওঠেন, টিকাকরণের প্রক্রিয়া যদি স্বাভাবিক থাকে, তা হলে কোভিড মৃতের সংখ্যা পূর্বাভাসের চেয়ে ৭০ হাজার কমে যেতে পারে বলেও ওয়াশিটংন বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা জানিয়েছে। একই সঙ্গে ভারতে টিকাকরণের গতিতে আশাপ্রকাশ করেছে এই গবেষণা।

গবেষণা জানিয়েছে, মাস্ক না পরা, সামাজিক দূরত্ববিধি না মেনে চলার খেসারত গুনতে গিয়ে এপ্রিলের প্রথম ও দ্বিতীয় সপ্তাহে সারা দেশে নতুন সংক্রমণের ঘটনা বেড়েছে ৭১ শতাংশ। আর দৈনিক কোভিড-মৃত্যুর সংখ্যা বেড়েছে ৫৫ শতাংশ।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..