1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • মঙ্গলবার, ২১ মার্চ ২০২৩, ০১:১৬ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
১৭ মার্চ ওড়াতে হবে জাতীয় পতাকা, প্রজ্ঞাপন জারি, পাহাড়ে সামগ্রিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে : আইজিপি, অপ্রয়োজনীয় টেস্ট দিয়ে রোগী হয়রানি করবেন না : রাষ্ট্রপতি, সবচেয়ে বড় যৌথ সামরিক মহড়ায় যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়া, পরিবেশ সংরক্ষণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে গণমাধ্যম-পরিবেশমন্ত্রী,সাবেক এমপি নাসের রহমানের ওপর ছাত্রলীগ-যুবলীগের হামলার প্রতিবাদে পুলিশের বাধা পেরিয়ে মৌলভীবাজারে বিএনপি’র বিক্ষোভ ও সমাবেশ, রমজানে মানুষের কষ্ট লাঘবে ব্যবস্থা নিয়েছি : প্রধানমন্ত্রী, রমজানে বাজার অস্বাভাবিক হলে ডিসিদের ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ, গুলিস্তান-সায়েন্সল্যাবের বিস্ফোরণে জঙ্গি সংশ্লিষ্টতা নেই : আইজিপি.সপ্তাহে তিন দিন ছুটির কথা ভাবছে সৌদি সরকার. মিয়ানমারে বৌদ্ধ মঠে সেনাবাহিনীর হামলা : নিহত ৩

রেলের টিকিট কাটায় দুর্ভোগ, অনলাইনে ঢুকতেই পারছেন না যাত্রীরা

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২২
  • ২৪৫ বার পঠিত

ডেস্ক রিপোর্ট : ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দ্বিতীয় দিনের মতো আজ রোববার ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে সকাল আটটা থেকে। আজ দেওয়া হচ্ছে আগামী ২৮ এপ্রিলের অগ্রিম টিকিট। টিকিট বিক্রি শুরু হওয়ার ৮ মিনিট পরে কাউন্টার থেকে প্রথম টিকিট দেওয়া হয়েছে। তবে স্টেশনে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা যাত্রীরা কেউই অনলাইনে টিকিট কাটার জন্য ঢুকতে পারছেন না।

রোববার কমলাপুর রেলস্টেশনসহ ঢাকার আরও চারটি স্টেশন থেকে একযোগে অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। ট্রেনের মোট টিকিটের অর্ধেক কাউন্টার এবং অর্ধেক অনলাইনে দেওয়া হচ্ছে।

কমলাপুর রেলস্টেশন সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, গতকাল থেকেই যাত্রীরা কমলাপুর রেলস্টেশনে অপেক্ষা করছেন অগ্রিম টিকিট কাটার জন্য। তবে গতকাল শনিবারের তুলনায় আজ অগ্রিম টিকিট প্রত্যাশীদের ভিড় ছিল সবচেয়ে বেশি। ভ্যাপসা গরম আর যাত্রীদের গাদাগাদিতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন স্টেশনে আসা মানুষ। সকাল আটটা থেকে টিকিট বিক্রি শুরু হলেও অনলাইনে কেউ ঢুকতে পারেননি। একই সঙ্গে কাউন্টারে টিকিট দিতেও ধীর গতি দেখা গেছে।

উল্লেখ্য, এবারই প্রথম বাংলাদেশ রেলওয়ের ওয়েবসাইটে ‘কিউ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম’ যুক্ত করা হলো। এই পদ্ধতিতে নির্দিষ্টসংখ্যক মানুষ একসঙ্গে ওয়েবসাইট ব্যবহার করতে পারবে। এর বাইরে যারা রেলওয়ের ওয়েবসাইটে প্রবেশের চেষ্টা করেছে তাদের থাকতে হয়েছে অপেক্ষায়। ওয়েবসাইট ব্যবহারকারী ওই নির্দিষ্টসংখ্যক মানুষ থেকে যতজন বের হবে, ঠিক ততজন অপেক্ষমাণ ওয়েবসাইটে প্রবেশের সুযোগ পাবে।

কিউ ম্যানেজমেন্টের এই পদ্ধতির পক্ষে-বিপক্ষে মত রয়েছে। এই পদ্ধতিতে দেড় থেকে দুই লাখ মানুষ একসঙ্গে রেলওয়ের ওয়েবসাইট ব্যবহার করতে পেরেছে। ফলে লাখ লাখ টিকিটপ্রত্যাশীকে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হয়েছে। অনেকে প্রবেশও করতে পরেনি। এ কারণে বেশির ভাগ মানুষ অনলাইনে টিকিটও পায়নি। গতকাল শনিবার রেলের টিকিট কেনার জন্য অনলাইনে রেলওয়ের ওয়েবসাইটে প্রতি মিনিটে লাখো মানুষ ঢোকার চেষ্টা করে।

প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের ব্যয়ের ওপর নির্ভর করে কিউ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমে কত মানুষ একসঙ্গে ওয়েবসাইট ব্যবহার করতে পারবে। ব্যবহারকারীর সংখ্যা যত বাড়বে, সেই অনুপাতে খরচও বাড়বে।

রেলওয়ের টিকিট বিক্রির ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ‘সহজ ডটকম’-এর। কিউ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমটিও প্রতিষ্ঠানটি যুক্ত করেছে। এখন প্রশ্ন উঠছে, রেলওয়ের দুর্বল ওয়েবসাইট বাঁচাতে, নাকি প্রতিষ্ঠানটির খরচ কমাতে এমন ব্যবস্থা যুক্ত করা হলো? আবার রেলের সঙ্গে সহজের যে চুক্তি, তাতে এমন ব্যবস্থা যুক্ত করা যাবে কি না, সে বিষয়ে সপষ্ট কিছু বলা নেই।

রেলওয়ে সূত্র বলছে, সহজ ডটকমের সঙ্গে রেলের যে চুক্তি হয়েছে, তাতে এমন ব্যবস্থা যুক্ত করতে পারবে না বলে উল্লেখ নেই। চুক্তিতে প্রযুক্তিগত কিছু অস্পষ্টতা রয়েছে।

সহজ ডটকমের ব্যবস্থাপক ফারহাত আহমেদ (জনসংযোগ) বলেন, ‘কিউ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম যুক্ত করা বা না করা নিয়ে চুক্তিতে কোনো কিছু উল্লেখ নেই। তবে চুক্তি অনুযায়ী, রেলের যাত্রীদের উন্নত সেবা নিশ্চিত করা আমাদের দায়িত্ব। গতকাল (শনিবার) আমাদের সাইট সচল ছিল। একসঙ্গে দেড় থেকে দুই লাখ মানুষ ওয়েবসাইট ব্যবহার করার সুযোগ পেয়েছে। ’

তিনি বলেন, ‘লাখ লাখ মানুষ একসঙ্গে অনলাইনে টিকিট কেনার চেষ্টা করে। এই চাহিদার সঙ্গে জোগানের বিস্তর ফাঁরাক রয়েছে। সবাই টিকিট পাবে না, এটাই স্বাভাবিক। আজ (গতকাল) অনলাইন ও কাউন্টার মিলিয়ে প্রথম ঘণ্টায় সারা দেশে ৫০ হাজার টিকিট বিক্রি করা হয়েছে। ’

ঈদের আগাম টিকিট কিনতে কমলাপুর রেলস্টেশনে উপচে পড়া ভিড়। গতকাল তোলা।
ঈদের আগাম টিকিট কিনতে কমলাপুর রেলস্টেশনে উপচে পড়া ভিড়। গতকাল তোলা।

টিকিট কাটতে আসা যাত্রী মাসুম হাসান বলেন, ‘সকাল থেকে ২০ মিনিট চেষ্টা করেও ‘সহজ’-এর ওয়েবসাইটে ঢুকতে পারিনি। ফলে ওয়েবসাইট থেকে টিকিট কাটতে পারছি না। এই যদি অবস্থা হয়, তাহলে টিকিট কীভাবে কাটব? আগের চেয়েও খারাপ সার্ভিস দিচ্ছে সহজ। এখন ঢুকতে পারছি না, এক ঘণ্টা পরে ঢুকতে পারলে দেখাবে সব টিকিট শেষ।’

এদিকে আজ কাউন্টার থেকে প্রথম টিকিট পাওয়া হোসেন সাইফুল্লা নামের একজন যাত্রী বলেন, ‘প্রায় ২২ ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকার পর কাঙ্ক্ষিত টিকিট পেয়েছি। কিন্তু অনেক দুর্ভোগ হয়েছে। সব সময় অনিশ্চয়তা কাজ করেছে টিকিট পাব কি না, তবে টিকিট পেয়ে ভালো লাগছে, বাড়ির পথের যাত্রা নিশ্চিত হলো।’

তবে কমলাপুর রেলস্টেশনের টিকিট কাটতে দাঁড়িয়ে থাকা বেশির ভাগ যাত্রীকেই মোবাইল ফোন হাতে দেখা যায় অনলাইনে টিকিট কাটার চেষ্টা করছেন। কিন্তু এই প্রতিবেদক তাঁদের সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছেন, কোনো যাত্রীই অনলাইনে ঢুকে টিকিট কাটতে পারেননি। যাত্রীদের অভিযোগ, অনলাইনে ঢোকাই যাচ্ছে না।

আগামীকাল সোমবার দেওয়া হবে ২৯ এপ্রিলের টিকিট। ২৬ এপ্রিল দেওয়া হবে ৩০ এপ্রিলের টিকিট। ২৭ এপ্রিল দেওয়া হবে ১ মে এর অগ্রিম টিকিট। এদিকে ঈদযাত্রার ফিরতি টিকিট দেওয়া শুরু হবে ১ মে থেকে। এই দিন দেওয়া হবে ৫ মে’র অগ্রিম টিকিট।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..