1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ০৯:৪৮ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

পাহাড়ি ঢলে সিলেটে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৪ মে, ২০২২
  • ১৭১ বার পঠিত

ডেস্ক রিপোর্ট :: ভারত থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢল ও টানা তিন দিনের বৃষ্টিতে সিলেটে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। এতে সীমান্ত উপজেলা কানাইঘাট, গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর ও কোম্পানীগঞ্জের লক্ষাধিক মানুষ পানিবিন্দি হয়ে পড়েছেন। সদর উপজেলার কিছু নিচু এলাকাও ডুবে গেছে। এছাড়া পানিতে তলিয়ে গেছে গোয়াইনঘাট উপজেলার সড়ক।

এদিকে, সিলেট নগরের নিম্নাঞ্চলেও জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। বাড়ছে সুরমা ও কুশিয়ারাসহ অন্য নদ-নদীর পানিও। কোনো কোনো পয়েন্টে পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে।

সিলেট পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) সূত্র জানায়, সিলেট অঞ্চলে বৃষ্টির পানির সঙ্গে যোগ হচ্ছে উজান থেকে নেমে আসা ঢল। ভারতের মেঘালয়, ত্রিপুরা ও আসাম (বরাক অববাহিকা) প্রদেশের বিভিন্ন অঞ্চলে টানা বৃষ্টি হচ্ছে। এর ফলে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের আপার মেঘনা অববাহিকার প্রধান নদ-নদীগুলোর পানি বাড়ছে। সুরমা, কুশিয়ারা, ভোগাই-কংস, ধনু-বাউলাই, মনু ও খোয়াই নদীর পানি বেশ কিছুটা বেড়েছে। কয়েকটি পয়েন্টে পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সিলেটের সুরমা, কুশিয়ারা, সারি, পিয়াইনসহ সব নদীর পানি বাড়ছে। অব্যাহত বৃষ্টি আর উজানের ঢলে কানাইঘাট, গোয়াইনঘাট, জৈন্তাপুর ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছেন। জৈন্তাপুর উপজেলার নিজপাট এবং জৈন্তাপুর ইউনিয়নের অর্ধশতাধিক গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ এখন পানিবন্দি। এসব গ্রামের সঙ্গে উপজেলা সদরের সড়ক যোগাযোগও বিচ্ছিন্ন। এখানকার ফসলি জমিও তলিয়ে গেছে। একই অবস্থা গোয়াইনঘাট, কানাইঘাট উপজেলারও।

সিলেটে বৃষ্টি অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। ফলে বন্যার শঙ্কা রয়েছে। সিলেট আবহাওয়া অফিসের জ্যেষ্ঠ আবহাওয়াবিদ সাঈদ আহমদ চৌধুরী বলেন, সিলেটে ১৮ মে অবধি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টি হতে পারে। বিশেষ করে রাতের বেলা বৃষ্টি বেশি হবে।

সিলেট পাউবোর উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী এ কে এম নিলয় পাশা বলেন, উজানের ঢলে সিলেটের নদ-নদীগুলোর পানি বাড়ছে। এর সঙ্গে সিলেটে বৃষ্টিও যোগ হয়েছে। নদীর পানি বাড়ার কারণে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হতে পারে।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..