1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১০:৫৬ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
* বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শনে সিলেটে প্রধানমন্ত্রী   *  বন্যা নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই, সরকার সব ব্যবস্থা নিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

ঐক্যের ডাক অস্ট্রেলিয়ার নতুন প্রধানমন্ত্রীর

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২২ মে, ২০২২
  • ১৬৭ বার পঠিত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নির্বাচনে জয়ের পর উচ্ছ্বসিন সমর্থকদের সামনে গালফ্রেন্ড জোডি হেডন, ছেলে নাথানের মাঝে নবনির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী অ্যান্থনি আলবানিজ। ছবি: এপি
প্রায় এক দশক পর অস্ট্রেলিয়ার ক্ষমতায় আসলো লেবার পার্টির নেতা। শনিবার দেশটির সাধারণ নির্বাচনে কনজারভেটিভ ও মধ্য-ডানপন্থি স্কট মরিসনকে হারিয়ে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হন মধ্য-বামপন্থি অ্যান্থনি আলবানিজ। উচ্ছ্বসিত সমর্থকদের সামনে সবাইকে নিয়ে ঐক্যের ডাক দিয়েছেন ৫৯ বছর বয়সী আলবানিজ।

সংবাদ মাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

হাজারো সমর্থকদের উদ্দেশে আলবানিজ বলেন, ‌‘জনগণ পরিবর্তনের পক্ষে ভোট দিয়েছে। আমার কাছে, অস্ট্রেলিয়ার জনগণকে নেতৃত্ব দেয়া এক মহান অর্জন।’

মধ্য-বামপন্থি নতুন প্রধানমন্ত্রী সবাইকে নিয়ে ঐক্যের ডাক দিয়েছেন। এ ছাড়া সামাজিক সেবাগুলোতে বিনিয়োগ বাড়ানো এবং জলবায়ু পরিবর্তন ও দূষণ বন্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন। লিবারেল পার্টির প্রধানের দায়িত্ব থেকে পদত্যাগের ঘোষণাও দিয়েছেন আলবানিজ।

নবনির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী অ্যান্থনি আলবানিজকে অভিনন্দন জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

পরাজয় মেনে নিয়ে স্কট মরিসন বলেন, ‘ভোটের এই রায়ে অস্ট্রেলিয়ার জনগণের অবিশ্বাস্য এক ক্ষমতা প্রকাশ পেয়েছে। নতুন প্রধানমন্ত্রী আলবানিজের সঙ্গে আমরা কথা বলেছি। নির্বাচনে জয়লাভের পর আমি তাকে অভিনন্দন জানিয়েছি।’

দেশটির নতুন ফার্স্টলেডি হতে যাচ্ছেন আলবানিজের গার্লফ্রেন্ড জোডি হেডন। ৪৩ বছর বয়সী হেডন গত দুই বছর ধরে আলবানিজের বান্ধবী। হেডন হতে যাচ্ছেন দেশটির ইতিহাসে দ্বিতীয় ফার্স্টলেডি যিনি প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী নন তবে বান্ধবী।

লেবার পার্টির সবশেষ নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী ছিলেন কেভিন রুড। ২০১৩ সালের নির্বাচনে কনজারভেটিভ লেবারেল ন্যাশনাল কোয়ালিশনের কাছে বিপুল ভোটের ব্যবধানে হেরে যান রুড।

২০১৯ সালের নির্বাচনে দলটির পরাজয়ের পর বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন লেবার নেতা আলবানিজ।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী কেভিন রুড ও জুলিয়া গিলার্ডের শাসনামলে উপ-প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন আলবানিজ।

তবে তিনি নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করতে পারবেন কিনা তা এখনও স্পষ্ট নয়।

দ্য সিডনি মর্নিং হ্যারাল্ডের খবরে বলা হয়েছে, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের নেতৃত্বে মধ্য-ডান জোট-এলএনপি এখন পর্যন্ত ৫০টি আসনে জয় পেয়েছে।

আইএনডি ১০টি, গ্রিনপার্টি ৩টি ও অন্যান্য দল পেয়েছে ২টি আসন।

আংশিক ফলাফল অনুসারে লেবার পার্টি এখন পর্যন্ত ৭১টি আসনে জয় পেয়েছে। দেশটির পার্লামেন্টে নিম্নকক্ষে আসন সংখ্যা ১৫১টি। আর ৫টি আসনে জয় পেলেই নিম্নকক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে লেবার পার্টির আলবানিজ।

ফলাফলের এই পর্যায়ে দেখা যায়, আইএনডি, গ্রিনপার্টিসহ অন্যান্য দলগুলো যদি স্কট মরিসনের সঙ্গে জোট গঠন করে সেই জোটের পক্ষে নিম্নকক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন এখন আর সম্ভব নয়।

এখন পর্যন্ত ৬৭.০২ শতাংশ ভোট গণনা হয়েছে।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..