1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৪৪ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
বাস ভাড়া বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি,  এবার লঞ্চভাড়াও বাড়লো, ধর্মঘট প্রত্যাহার, গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মিশনে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাটিংয়ে পাকিস্তান, আফগান ও ভারতের বিদায়ঘণ্টা বাজিয়ে সেমিতে নিউজিল্যান্ড, সড়কে নেমেছে গণপরিবহন, কোন বাসে কত বাড়লো ভাড়া, সিএনজিচালিত গাড়িতে বাড়তি ভাড়া নয়

সুনামগঞ্জ ডিসি অফিসে কঠোর লক ডাউনের নির্দেশনা অমান্য

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২১
  • ৯১ বার পঠিত

বিশেষ প্রতিনিধি :: মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের কঠোর লক ডাউনের নির্দেশনা বাস্তবায়ন না করে “কোভিড-১৯” ভাইরাস সংক্রমন বৃদ্ধি করে লোকসমাগম এর মাধ্যমে উল্টো তা অমান্য করে এবং বিরোধীয় বিষয়ে সুনামগঞ্জ যুগ্ন জেলা জজ আদালতে (স্বত্ব মোকদ্দমা নং- ১৩/২০২১) চলমান অবস্থায় জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে গত ২৬ এপ্রিল অভিযোগের শুনানী করে ( এল.কেস নং- ০২/২০১৮-২০১৯ আওতায় অধিগ্রহণকৃত সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার ষোলঘর ও আহমদপুর মৌজার অধিগ্রহনকৃত ভূমির ক্ষতিপূরণ বাবদ প্রাপ্য প্রায় ২ কোটি টাকার চেক উত্তোলনের সহযোগীতা করেছেন সুনামগঞ্জ অফিসের সার্ভেয়ার আনোয়ারসহ ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা । অভিযোগকারী মোছা ঃ কানিজ ফাতিমাকে নোটিশ না দিয়ে শুধু মাত্র ব্যক্তি স্বার্থে ক্ষমতার অপ-ব্যবহার করে বিরাট অংকের অর্থের বিনিময়ে প্রতিপক্ষ আব্দুল মান্নানগংদের সাথে যোগাযোগীমূলে এ ঘঠনা ঘটেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক এবং ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা জহিরুল আলম মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের কঠোর লক ডাউনের নির্দেশনা অমান্য করে এবং অভিযোগকারীকে না জানিয়েই যোগাযোগীমূলে শুনানী করে টাকা আন্তসাঃ করায় ঘটনার প্রতিকার চেয়ে ফাতেমার নিযুক্তীয় বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন স্বাক্ষরিত লিগ্যাল নোটিশ পাটিয়েছেন। অভিযোগকারী মোছা ঃ কানিজ ফাতিমার লিখিত অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে- এল.কেস নং- ০২/২০১৮-২০১৯ আওতায় অধিগ্রহণকৃত সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার ষোলঘর মৌজার এসএ ৫১১ ও আহমদপুর মৌজার ৫১২ দাগের মধ্যে মধ্যে প্রত্যেক মালিকের পৃথক পৃথকভাবে ভূমির পরিমান উলে­খ করে যাবতীয় তথ্য প্রদান এবং মরহুমা হোসনে আরা বেগমমের উত্তরাধিকার হিসাবে ( পর্যায়ক্রমে- কানিজ ফাতেমা, আব্দুল মান্নান, হোসনে আরা বেগম (মৃতঃ), রহমত আলী, মোঃ জিয়াউল হক শাহীন, সুফিয়া বেগম ও আব্দুর রকিব) অধিগ্রহনকৃত ভূমির ন্যায্য হিস্যা বুঝে পাওয়ার দাবীতে লিখিত একাধিক আবেদন করেন। কিন্তু কোন অভিযোগ এর নিস্পত্তি করা হয়নি। সর্বশেষ তিনি সুনামগঞ্জ যুগ্ন জেলা জজ আদালতে (স্বত্ব মোকদ্দমা নং- ১৩/২০২১) দায়ের করেন এবং এল.কেস নং- ০২/২০১৮-২০১৯ আওতায় অধিগ্রহণকৃত সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার ষোলঘর ও আহমদপুর মৌজার অধিগ্রহনকৃত ভূমির ক্ষতিপূরণের টাকা মামলা (স্বত্ব- মামলা নং- ১৩/২০২১ইং) নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত ক্ষতিপূরণের সমুদয় টাকা স্থগিত রাখার অনুরোধ করেন এবং প্রয়োজনে অধিগ্রহনকৃত ভূমির ন্যায্য উত্তরাধিকারীদের নোটিশ প্রদাদের মাধ্যমে উক্ত অভিযোগের শুনানী করার জন্য আবেদন করেন। কিন্তু, পূর্বের ন্যায় অভিযোগকারীকে না জানিয়ে, মহামারি “কোভিড-১৯” ভাইরাস সংক্রমন বৃদ্ধির কারণে গুরুত্বপূর্ণ কার্যক্রম ছাড়া অফিসের সকল কার্যক্রম স্থগিত থাকা অবস্থায় অনৈতিক লেনদেনের মাধ্যমে প্রায় ২ কোটি টাকার চেক উত্তোলনের সহযোগীতা করেছেন। এ ব্যপারে কানিজ ফাতেমা বলেন- সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারনী কর্তৃপক্ষ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের কঠোর লক ডাউন ভঙ্গ করে শারীরিক দুরত্ব ক্ষুন্ন করে অধিগ্রহণ মামলার টাকা প্রদানের শুনানি করেছেন। ডিসি অফিস থেকে বলছে ডাক মারফত আমাকে নোটিশ দিবে। কিন্তু আমি নোটিশ না পেয়ে যোগাযোগ করি। তখন সার্ভেয়ার আনোয়ার জানায় নোটিশ ডাকে পাঠানো হয়েছে। অথচ নোটিশের কোন হদিস না পেয়ে এলএও জহিরুল আলমকে ফোন দিলে তিনি আমাকে জানান ওয়াটস্এ্যাপে নোটিশ পাঠাচ্ছি। আগামীকাল শুনানী। ফাতেমা আরো জানান- ন্যায় বিছারের স্বার্থে লকডাউনের পর যতাযত ভাবে নোটিশ প্রদান করে শুনানীর আবেদন জানাচ্ছি এবং বেআইনীভাবে ইন্স্যুকৃত টাকার চেক বাতিল করে নতুনভাবে সকল অংশীদারদের অংশ গ্রহণের মাধ্যমে কার্যক্রম গ্রহণ করার অনুরোধ করছি। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে গত ২৮শে এপ্রিল যেখানে কঠোর লক ডাউন। সেখানে জরুরি নয়, জনস্বার্থ জড়িত নয়, যেখানে স্বত্ব মামলা চলমান সেখানে কার স্বার্থে ডিসি/এডিস মহোদয় শুনানি গ্রহণ করছেন। আইনের রক্ষক হয়ে ভক্ষকের কাজ,ক্ষমতার চরম অপব্যবহার।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..