1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৭:১৫ অপরাহ্ন

প্রথম ইনিংসে ২৫১ রানে গুটিয়ে গেছে বাংলাদেশ

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১ মে, ২০২১
  • ৬১ বার পঠিত

ক্রীড়া ডেস্ক :: পাল্লেকেলেতে বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে ৪৯৩ রানে নিজেদের ইনিংস ঘোষণা করেছে শ্রীলঙ্কা। জবাবে বাংলাদেশের প্রথম ইনিংস গুটিয়ে গেছে ২৫১ রানে। আর শেষ ৩৭ রানের মধ্যেই ৭ উইকেটের পতন হয়েছে বাংলাদেশের।

লঙ্কানরা ৬ উইকেটে ৪৬৯ নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করেছিল। নিরোশান ডিকওয়েলা ৬৪ ও রামেশ মেন্ডিস ২২ রানে অপরাজিত ছিলেন। দিনের শুরুতেই মেন্ডিসকে ডিপ স্কয়ার লেগে মুশফিকের ক্যাচ বানিয়ে আউট করেছেন তাসকিন আহমেদ।

এরপরই লঙ্কানরা ইনিংস ঘোষণা করে। ১২৭ রানে ৪ উইকেট নিয়ে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সফল বোলার তাসকিন আহমেদ। আর একটি করে উইকেট নিয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ, শরিফুল ইসলাম, তাইজুল ইসলাম।

লঙ্কানদের বড় রানের জবাবে ব্যাটিং করতে নেমে শুরু থেকেই ওয়ানডে গতিতে খেলতে থাকেন তামিম। বাঁহাতি এই ওপেনার ৫৭ বলে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন। টেস্টে এটি তামিমের টানা চতুর্থ হাফ সেঞ্চুরি। সাইফ অবশ্য প্রথম সেশনে ধীরস্থির ব্যাটিং করেছেন।

মধ্যাহ্নভোজের বিরতির ঠিক আগে প্রবীন জয়াবিক্রমার করা অফ স্টাম্পের বাইরে বল খোঁচা দিয়ে গালিতে ক্যাচ দিয়ে আউট হয়েছেন সাইফ। তাঁর ব্যাট থেকে আসে ৬২ বলে ২২ রানের ইনিংস। মধ্যাহ্নভোজের বিরতির আগে শান্তও টিকতে পারেননি বেশিক্ষণ।

৪ বলে কোনো রান না করে রামেশ মেন্ডিসের বলে স্লিপে লাহিরু থিরামান্নের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন তিনি। ৯৯ রানে ২ উইকেট হারিয়ে মধ্যাহ্নভোজের বিরতিতে যায় বাংলাদেশ। মধ্যাহ্নভোজের বিরতির পর সেঞ্চুরির পথে থাকা তামিম ব্যক্তিগত ৯২ রানে জয়াবিক্রমার বলে লাহিরু থিরিমান্নের হাতে ক্যাচ দেন।

তামিম সাজঘরে ফেরার পর বেশ ভালোই সামাল দিচ্ছিলেন মুমিনুল হক ও মুশফিকুর রহিম। চা বিরতির ঠিক আগে মুশফিককে এলবিডব্লিউ করে আউট করেন প্রবীন জয়াবিক্রমা। ৪ উইকেটে ২১৪ রান নিয়ে চা বিরতি থেকে ফিরে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ। তখন ফলোঅন এড়াতে আর ৮০ রান দরকার ছিল।

এমন পরিস্থিতিতেই এক ওভারের ব্যবধানে ফেরেন মুমিনুল হক ও লিটন দাস। বাংলাদেশ অধিনায়ক মেন্ডিসের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে আউট হন হাফ সেঞ্চুরি থেকে ১ রান দূরে। আর লিটন ৮ রান করে ক্যাচ দেন থিরিমান্নের হাতে জয়াবিক্রমার বলে। মেহেদী হাসান মিরাজ কিছুটা সাবলীল শুরু করলেও বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি।

তিনি জয়াবিক্রমার পঞ্চম শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন এলবিডব্লিউ হয়ে। অভিষেক পাঁচ উইকেট নেয়া চতুর্থ লঙ্কান বোলার এই বাঁহাতি। তাঁর আগে কোসালা কুরুপ্পুয়ারাচি, উপুল চন্দনা ও আকিলা ধনঞ্জয়া অভিষেক টেস্টেই পাঁচ উইকেট নিয়েছিলেন।

দিনের শেষ বেলায় তাসকিন আহমেদ ও শরফুল ইসলাম কোনো রানই যোগ করতে পারেননি। এই দুজনকে ফিরিয়েছেন যথাক্রমে জয়াবিক্রমা ও সুরাঙ্গা লাকমল। তাইজুল ইসলাম ৯ রান নিয়ে দৃষ্টিকটুভাবে হিট আউট হলে বাংলাদেশের ইনিংস গুটিয়ে যায় ২৫১ রানে।

শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস: (আগের দিন ৪৬৯/৬) ১৫৯.২ ওভারে ৪.৯৩/৭ (থিরিমান্নে ১৪০, ওশাদা ৮১, ম্যাথিউস ৫, ধনাঞ্জয়া ২, নিসানকা ৩০, ডিকওয়েলা ৭৭*, মেন্ডিস ৩৩; তাসকিন ৪/১২৭, শরিফুল ১/৯১)।

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস: ৮৩ ওভারে ২৫১/১০ (তামিম ৯২, সাইফ ২৫, শান্ত ০, মুমিনুল ৪৯, মুশফিক ৪০; জয়াবিক্রমা ৬/৯২, লাকমল ২/৩০, মেন্ডিস ২/৮৬)

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..