1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • সোমবার, ০৮ অগাস্ট ২০২২, ০১:৫১ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
* বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শনে সিলেটে প্রধানমন্ত্রী   *  বন্যা নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই, সরকার সব ব্যবস্থা নিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

সুনামগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের জন্য ৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দিল সরকার

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২ জুলাই, ২০২২
  • ৪১ বার পঠিত

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জে স্মরণকালের ভয়াবহ বন্যা পরিস্থিতির দেখেছে মানুষ। ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে পাঁচ হাজার পরিবারের। এসব পরিবারের জন্য অনুদান হিসেবে ৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল থেকে এই অর্থ বরাদ্দ দেওয়া হয়। সে হিসাবে ক্ষতিগ্রস্ত প্রতিটি পরিবার ১০ হাজার টাকা করেন পাবে।

সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, ভয়াবহ বন্যায় প্রতিটি উপজেলায় ঘরবাড়ির ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। অনেকের বাড়ি-ঘর তছনছ হয়ে গেছে। ক্ষতিগ্রস্তরা যেন আগের অবস্থায় যেতে পারেন, সেজন্য প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল থেকে সুনামগঞ্জের পাঁচ হাজার পরিবারের জন্য ৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে সুনামগঞ্জ সদরসহ ১২টি উপজেলা প্লাবিত হয়। পানিবন্দি হয়ে পড়েন ১৩ লাখেরও বেশি মানুষ। জীবন বাঁচাতে লক্ষাধিক মানুষকে বাড়ি ছেড়ে যেতে হয়েছে আশ্রয় কেন্দ্রে।

পানির চাপ এতটা ভয়াবহ ছিল যে বন্যায় সুনামগঞ্জ জেলার ৪৫ হাজার ২৮৮টি বসতির ক্ষতি হয়েছে। অবস্থা বেশি খারাপ হওয়ায় এখনো অনেক মানুষ নিজের ঘরে ফিরতে পারেননি। বানভাসি এসব মানুষ দিশেহারা অবস্থায় মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

এর আগে ক্ষতিগ্রস্ত ঘরবাড়ির তথ্য প্রকাশ করে জেলা প্রশাসন সুনামগঞ্জ। সরকারি তথ্য অনুযায়ী, জেলার ১১টি উপজেলা ও ৪টি পৌরসভায় ক্ষতিগ্রস্ত বসতঘরের সংখ্যা ৪৫ হাজার ২৮৮টি। এর মধ্যে সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়েছে ৪ হাজার ৭৪৭টি। আংশিক ক্ষতি হয়েছে ৪০ হাজার ৫৪১টি।

জেলা প্রশাসক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন জানিয়েছেন, এরই মধ্যে ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িঘরের তালিকা তৈরি করা হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে পাঠানো হয়েছে। শিগগিরই অর্থসহায়তা দেওয়া হবে, যাতে তারা নগদ অর্থ দিয়ে বাড়িঘর মেরামত ও পুনর্বাসিত হতে পারেন।

 

 

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..