1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

বনবিভাগের ভুমিতে বীজ গবেষনা…: গাছ কাটার মহোৎসব

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৫ মার্চ, ২০২১
  • ১৫৮১ বার পঠিত

মৌলভীবাজার বনবিভাগের ভুমিতে বীজ গবেষনা কেন্দ্রর দেয়াল নির্মান: গাছ কাটার মহোৎসব: বন্যপ্রানী হচ্ছে বাধাগ্রস্থ

স্টাফ রিপোটার: মৌলভীবাজার বর্ষিজুড়া বনবিভাগের ভুমিতে বীজ গভেষনা কেন্দ্র অফিসটি নিজেদের দখলে নিতে ২হাজার ফুট দেয়াল নির্মান ও গাছ কেটে সাবার করছে বীজ গভেষনা কেন্দ্র। ফলে বাধাগ্রস্থ হচ্ছে বণ্যপ্রানীকুল। সেই সাথে বনবিভাগের ভুমিতে থাকা ছোট বড় গাছ কাটার মহোৎসব। দিবা-রাত্রি দেয়াল নির্মানের অজুহাতে গাছ কেটে প্রকাশ্যে সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে বীজ গভেষনা কেন্দ্রের নিয়োজিতরা। জানা গেছে, মৌলভীবাজার বন বিভাগের (বন্যপ্রানী সংরক্ষন বিভাগের) ভুমিতে কোন অনুমুতি ছাড়াই বীজ গভেষনা কেন্দ্র তাদেপ মনগড়া এরিয়া নির্ধারন করিয়া কোন কাগজপত্র ছাড়াই একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্টানকে দিয়ে দেয়াল নির্মান করে তাদের দখলে নিয়ে যাওয়ার কাজ করছে। বনবিভাগ বাধা-নিষেধ দিলেও বীজ গভেষনা কেন্দ্র তা মানছেনা। বরং তারা বহিরাগত ভাড়াটে কিছু লোক দিয়ে রাতারাতি কাজ করে যাচ্ছে। এদিকে বনবিভাগের দায়িত্বে থাকা স্থানীয় ও উর্ধতন কতৃপক্ষ ইতিপুর্বে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সমঝোতা না হওয়া পর্যন্ত কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিলে বীজ গভেষনা কেন্দ্র সেটা না মেনে দিবারাত্রি কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

সরজমিনে দেয়াল নির্মানের আশপাশে দেখা যায় ছোট বড় অর্ধশতাধিক গাছের মুড়া পড়ে আছে। স্থানীয় বাসন্দিারা নাম প্রকাশে অনুরোধ করে বলেন,দেয়ালের উভয় পাশেই বনবিভাগের পাহাড়ী এলাকা। এ এলাকায় বন্যপ্রানীরা অবাধে চলাফেরাসহ পুকুরে পানি পান করতো কিন্তুু বনবিভাগের ভুমিতে বসবাসকৃত বীজ গভেষনা কেন্দ্র ভুমি দখল করে নিজেদের নিয়ন্ত্রনে রাতারাতি অপরিকল্পিত দেয়াল নির্মান কাজ করায় মারাত্বক ক্ষতিগ্রস্থ হবে বন্যপ্রাণীরা। তাছাড়া গাছ কেটে সাথে সাথেই পাচার করছে বিভিন্ন স্থানে এমন ও অভিযোগ রয়েছে। ফলে বন বিভাগের গাছগাছালী ও বণ্যপ্রানীর আভাসস্থল ও বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। বীজ গভেষনা কেন্দ্র ব্যবহারের সুযোগ বন বিভাগ দিলে কোন কাগজজাত তাদের নেই। এছাড়াও গত কয়েক বছর থেকে পাহাড়ে মধ্যে একটি পুকুর বণ্যপ্রাণীর জন্য গুরুত্বপুর্ন ভুমিকা পালন করে আসছিল। এনিয়ে বীজ গভেষনা কেন্দ্রের কয়েক দফায় দফায় একদিক বৈঠকে বাধা-নিষেধ খাকলে কিভাবে দেয়াল নির্মান ও গাছ কেটে নিয়ে যাচ্ছেন এমন অভিযোগে নিয়ে দ্বন্ধ চলছে।

বন্যপ্রানী সংরক্ষন বিভাগ বাধা নিষেধ দিলে ও বীজ গভেষনা কেন্দ্র অপরিকল্পিত দেয়াল নির্মান বন্যপ্রানীর জন্য হুমকি হয়ে দাড়িয়েছে। একটি সুত্র জানিয়েছে যে, ঠিকাদারী প্রতিষ্টান দ্রুত ও রাতারাতি কাজ করতে কতেক ভাড়াটে সন্ত্রাসীকে নিয়োজিত করে কাজ করাচ্ছে।

 

বিস্তারিত আসছে———-

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..