1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  • E-paper
  • English Version
  • শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১০:৪৭ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
করোনা আপডেট : করোনায় আরও ২২৮ মৃত্যু, শনাক্ত ১১,২৯১  

ভারতে হিন্দু ব্যক্তির শেষকৃত্য করলেন মুসলিম ও খ্রিস্টান যুবক!

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৮ মে, ২০২১
  • ৫৭ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাস সংক্রমণের ‘সুনামি’তে ভারতের চিকিৎসা ব্যবস্থা প্রায় ভেঙে পড়তে বসেছে। দেশটিতে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ‘সার্স-কভ-২’ ভাইরাস সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ ও মৃত্যু। প্রতিদিনই ভাঙছে মৃত্যু ও শনাক্তের রেকর্ড। এত মৃত্যুর মিছিলে দেশটিতে করোনায় মৃত মানুষের শেষকৃত্যর জন্য জায়গা না পেয়ে গণচিতা পর্যন্ত দিতে হচ্ছিলো।  এবার করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত হিন্দু ব্যক্তির শেষকৃত্য সারলেন ইসলাম ও খ্রিস্ট ধর্মের দুই যুবক। তাদের একজনের নাম  নাম সাদ খায়ুম ও অন্যজন রাহুল জর্জ। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে  তারা দুজন হিন্দু ধর্মের  এই ব্যক্তির শেষকৃত্য সারেন। কারণ এই কাজ করতে গিয়ে তারা বাধার মুখে না পড়লেও ভয়ে ছিলেন। কারণ একটাই। কর্নাটকের শাসকদল এখন বিজেপি। তাই অন্য ধর্মের মানুষের শেষকৃত্য করা এই রাজ্যে খানিকটা ঝুঁকির কাজ।

মৃতের চিতাভস্ম কাবেরী নদীতে বিসর্জন করেন তারা। কর্নাটকের শ্রীরাঙ্গাপত্তনের ঘটনা। ৩০ এপ্রিল তাঁরা ওই বৃদ্ধের শেষকৃত্য করেন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত ওই হিন্দু ব্যক্তির এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। যদিও তারাও করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি। তাই, হিন্দু রীতি অনুসারে চিতাভস্ম নদীতে বিসর্জনের দায়িত্ব খায়ুম ও জর্জের উপর পড়েছিল ঝুঁকির কথা মানছেন রাহুল জর্জও।  তিনি বলেন, আমাদের খালি মনে হয়েছিল যদি আমাদের কোনও ভুল হয়। তবে আমরা কোনও বিতর্ক চাইনি। আমরা ভয় পেয়েছিলাম। খায়ুম বলেন, আমরা প্রায়শই নিজেদের রসিকতা করি যে ওরা শীঘ্রই এই কাজকে ‘শেষকৃত্য জিহাদ’বলে অভিহিত করতে পারে। তবে আমরা এটাও জানি যে এই কাজটি করা দরকার ছিল।

তিনি আরও বলেন, যদি কাল কিছু অভিযোগ ওঠে, তবুও আমি মনে করি না যে আমরা অনুশোচনা করব। সাদ ও রাহুলের ভয় সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন নয়। বিগত কয়েক বছরে কর্নাটকে সাম্প্রদায়িক হিংসা বেড়েই চলেছে। ‘লাভ জিহাদ’ থেকে গো-হত্যা বিরোধী আইন। অনেক কিছুই পরিবর্তন হয়েছে দক্ষিণের এই রাজ্যে। তাই ভিন্ন ধর্মের মানুষের দ্বারা শেষকৃত্যের কাজ অনেক প্রশ্ন তুলতে পারে।

 

প্রসঙ্গত, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুতে আগের রেকর্ডকে পেছনে ফেলে নতুন রেকর্ড গড়লো ভারত। দেশটিতে এই প্রথম মৃত্যু ৪ হাজার ছাড়ালো। করোনায় আক্রান্ত হয়ে শুক্রবার ভারতে অন্তত ৪ হাজার ১৮৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এখন পর্যন্ত দেশটিতে একদিনে এটাই সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।

 

ওয়ার্ল্ডোমিটারের হিসাব অনুসারে, করোনায় একদিনে ৪ হাজারের বেশি মৃত্যু দেখা তৃতীয় দেশ ভারত। এর আগে কেবল যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলে একদিনে এত বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..