1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:৪৩ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
* বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শনে সিলেটে প্রধানমন্ত্রী   *  বন্যা নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই, সরকার সব ব্যবস্থা নিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

ফলোঅfপ- মৌলভীবাজারে চুরির দায়ে আটক: অত্ব:পর আটক কারীদের হেফাজতে সায়েমের মৃত্যু

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ১১৬৮ বার পঠিত

 

বিশেষ প্রতিবেদক: মৌলভীবাজার সদর উপজেলার ১২নং গিয়াসনগর ইউনিয়নের নিতেশ্বর গ্রামে চুরির অভিযোগে সিএনজি চালক সায়েম মিয়া (৩৫) কে আটক করলে আটক কারীদের হেফাজতে সায়েমের মৃত্যু হয়। নিহত সায়েম নিতেশ্বর গ্রামের রিয়াজ মিয়ার পুত্র।

এ ব্যপারে স্থানীয় লোকজন ভিন্ন চিত্র তুলে ধরে বলেন- বৃহস্পতিবার ভোর রাতে পূর্ব কদুপুর গ্রামে একটি বাড়ীতে চুরি করতে প্রবেশ করলে বাড়ির লোকজন সায়েমকে আটক করে। এসময় তার সাথে থাকা আরও ২ থেকে ৩ জন পালিয়ে যায়। পরে আটক সায়েমকে গিয়াসনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের বাড়িতে নিয়ে যাওয়ার পথে কদুপুর এলাকার একটি পাম্পের সম্মুখে উত্তেজিত জনতার পিটুনিতে গুরুত্বর আহত হলে দীর্ঘ সময় কোথায় ছিল আর কাদের হেফাজতে ছিল সায়েম এনিয়ে প্রশ্ন উঠেছে ?   কিন্তুু প্রশ্ন হচ্ছে আটক সায়েম দরে নিয়ে যাওয়ার পর দীর্ঘ সময় কোথায় ছিল আর কারা তাকে শরীেরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করলো এনিয়ে চলছে জল্পনা-কল্পনা। এলাকাবাসীরা জানায় সায়েমকেতো দরে নিয়ে যাওয়া হয় তাহলে গনপিটুনি কখন দেয়া হলো আর একটা মানুষ ও জানেনা তাকে চুরি অপরাধে রাস্তায় গনপিটুনি দিয়ে মারা হলো। তারা আরো বলেন সায়েমকে সুস্থ অবস্থায় দরে নিয়ে কিভাবে বলা হচ্ছে গনধুলাই দিয়ে মারা হয়। প্রশাসন বিষয়টি তদন্ত করে প্রকৃত ঘটনার উদঘাটন করবে এমনটাই প্রত্যাশা।
সায়েম একজন সিএনজি চালক, তার পিতা রিয়াজ মিয়া, কদুপুর, মৌলভীবাজার সদর উপজেলা। তার স্ত্রী ও ২ সন্তান রয়েছে। অবুঝ দুটি শিশু সন্তান ফেল ফেল করে বলছে বাবাকে এনে দাও………।  শুধু তাই নয় অসহায় সায়েমের পরিবার ও এলাকাবাসীর মাজে শোকের মাতম চলছে দেখা যায়।
নিহত সায়েম এর ভাই সালমান মিয়া ও তার পিতা রিয়াজ মিয়া দৈনিক মৌমাছি কন্ঠকে জানান- একই এলাকার ইমরান মিয়াগংদের বিরুদ্ধে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্টেট ১নং আমল আদালত মৌলভীবাজার (সি.আর ৩৯৮ নং) মামলা চলমান। পূর্ব পরিকল্পিতভাবে গত ১৪ সেপ্টেম্বর সায়েমকে নিতেশ^রস্থ “নিল আকাশ বার্গার হাউজ” মৌলভীবাজার-শ্রীমঙ্গল রোড হইতে ১৫ সেপ্টম্বর রাত আনুমানিক ৯টায় ১২নং গিয়াসনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন টিটু এর বাড়ীতে জোরপূবৃক তুলে নেওয়া হয় এবং রাত ভর থাকে আঘাত করা হয়। তার মাথার বাম পাশে, বাম গালে, হাতে, শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্বকভাবে আঘাত ও মারপিটের মাধ্যমে কাটা রক্ষাক্ত জখম করে। পরে গ্রাম পুলিশসহ ভ্যানযোগে বৃহষ্পতিবার সকালের দিকে কদুপুরস্থ “মেসার্স সম্রাট এল.পি.জি অটো গ্যাস ফিলিং ষ্টেশন এন্ড কনভার্সন সেন্টারে” নিয়ে গিয়ে সেখানে তাকে ফেলে রাখা হয়।

সংবাদ পেয়ে মৌলভীবাজার মডেল থানার পুলিশ ও স্থানীয়রা মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। সর্বশেষ এ ঘটনায় নিহত সায়েম এর ভাই সালমান মিয়া বাদী হয়ে ১২নং গিয়াসনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন টিটু (৩৬), ইমরান মিয়া (৩০), সাজ্জাদুর রহমান (৩৮), ইউনিয়নের গ্রাম পুলিশ ইসলাম মিয়া (৪৫), জয়নুদ্দিন মিয়া (৩৮)সহ অজ্ঞাতনামা ৫/৬জনকে বিবাদী করে মৌলভীবাজার মডেল থানায় আজ ১৫সেপ্টেম্বর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

এ ব্যপারে জানতে চাইলে ১২নং গিয়াসনগর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মোশারফ হোসেন টিটু বলেন- সায়েম এলাকায় চোর হিসাবে পরিচিত। উত্তেজিত জনতার ধাওয়া খেয়ে গণপিটুনীতে সে মৃত্যুবরণ করেছে। বিষয়টি আমাকে মুঠোফোনে অবগত করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন- যারা চুরির অপরাধে আমাকে বেধে রাখা হয়েছে বলে জানায়। আমি সাথে সাথে মৌলভীবাজার সদর থানা ওসি মোঃ ইয়াছিনুল হক ও ১২ নং গিয়াসনগর ইউনিয়নের দায়িত্বে থাকা এসআইকে মোবাইল ফোনে রাতেই অবগত করি।
ঘটনার দিন আমার এক রোগী নিয়ে সিলেটে ছিলাম এবং রাত ২টার দিকে নিজ বাড়িতে আসি। যাহার সত্যতা মোবাইল লকেশন ও সিলেটের একটি হাসপাতালের সিসি ক্যামেরা ফুটেক প্রশাসন সংগ্রহ করলে পাওয়া যাবে। কিন্তুু দু:খজনক হলেও সত্য যারা অভিযোগ তুলছে, তারা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত করছে। আমি উহার তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

মৌলভীবাজার মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইয়াছিনুল হক জানান- নিহত সায়েম এর বিরুদ্ধে ৫/৬টি মামলা রয়েছে। বিষটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তার বিরুদ্ধে এলাকায় একাধিক চুরির অভিযোগ। অভিযোগের ব্যপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন- বাদী যে অভিযোগ করছে তার সত্যতা কি আছে। থানায় এর রখম কোন অভিযোগ আসেনি। অভিযোগ এলে আমরা তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেব।

এদিকে ঘঁনার প্রতিবাবে সন্ধায় মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গল সড়কের (মোকামবাজার- কদুপুর) এলাকায় স্থানীয় এলাকাবাসী সড়ক অবরোধ করে প্রতিবাদ জানায় এবং প্রকৃত ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতাসহ আইনহত ব্যবস্থা নেয়ার দাবী জানায়।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..