1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:১১ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
* বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শনে সিলেটে প্রধানমন্ত্রী   *  বন্যা নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই, সরকার সব ব্যবস্থা নিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

কুলাউড়া পূজা উদযাপন পরিষদের বিরুদ্ধে অভিযোগ নিয়ে সংবাদ সম্মেলনঃ সুমন মিত্র সহ ৪জনকে অব্যাহতি দিল কেন্দ্রীয় কমিটি

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২ অক্টোবর, ২০২২
  • ১৫৭৫ বার পঠিত

স্টাফ রিপোর্টার ; পূজা উদযাপন পরিষদ কুলাউড়া উপজেলার বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ এনেছে সম্প্রীতি সংঘ।

গতকাল শনিবার  মৌলভীবাজার প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করেন সম্প্রীতি সংঘের সাধারণ সম্পাদক সৌমিত্র দেব। এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন বাপার মৌলভীবাজার জেলার সভাপতি আ স ম সালেহ সুহেল ও জীবনচক্র থিয়েটারের সভাপতি আনোয়ার হোসেন দুলাল।
সৌমিত্র দেব বলেন, সম্প্রীতি সংঘ মৌলভীবাজার জেলার একটি আলোচিত সংঘ। গত বছর থেকে কুলাউড়া উপজেলার উচাইল গ্রামে এই সংঘ থেকে পূজার আয়োজন করা হয়েছে।
এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মৌলভীবাজার জেলার সর্বজন শ্রদ্ধেয় একজন ব্যক্তিত্ব সুনির্মল কুমার দেব মীন। অথচ কুলাউড়া উপজেলার পূজা উদযাপন পরিষদের নেতৃবৃন্দ এই সংঘ কে পূজার তালিকাভুক্ত করতে উৎকোচ চেয়েছে। তা না পাওয়ায় গত বছর নানা ধরনের বাধা বিঘ্ন সৃষ্টি করেছে। অবশেষে জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসানের হস্তক্ষেপে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে পূজাটি উদযাপন করা হয়।
এবছর অন্য কোনো বাধা সৃষ্টি না করলেও একই কায়দায় সম্প্রীতি সংঘকে তালিকাভুক্ত করেনি কুলাউড়া পূজা উদযাপন পরিষদ। অথচ এই পূজা উদযাপন পরিষদের বিরুদ্ধে ভুয়া সংগঠনের নাম তালিকাভুক্ত করার অভিযোগ আছে। শুধু তাই নয় উপজেলার আরো কয়েকটি মন্ডপের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে। জেলা পূজা উদযাপন কমিটি কে গতবছর অবগত করা হলেও কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। জেলা ও উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের ইমন খানের কথা বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটিকে এসব অনিয়মের অভিযোগ জানালে কেন্দ্রীয় কমিটি কুলাউড়া উপজেলা
পূজা উদযাপন কমিটির সাবেক সাধারন সম্পাদক সুমন মিত্রসহ চারজনকে অব্যাহতি প্রদান করা হয়।

আ স ম সালেহ সুহেল বলেন,সম্প্রীতি সংঘের নাম তালিকাভুক্ত না করা অত্যন্ত দুঃখজনক। এ ঘটনা প্রমাণ করে,শুধু অন্য সম্প্রদায়ের নয় নিজের সাম্প্রদায়ও সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে পারে।
আনোয়ার হোসেন দুলাল বলেন, পূজা উদযাপন পরিষদের এই অনিয়ম আমি খুব কাছ থেকে দেখেছি। সম্প্রীতি সংঘের পূজা উদযাপনে কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে পূজা উদযাপন পরিষদ কে তার দায় বহন করতে হবে।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..