1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৩:০৯ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
মৌলভীবাজারের ৫টি রেলওয়ে স্টেশন বন্ধ থাকায় এখন ভুতুরে বাড়ি: যাত্রী দুর্ভোগ চরমে: চুরি ও নষ্ট হচ্ছে রেলওয়ের মুল্যবান সম্পদ,নতুন বছরে দৃঢ় হোক সম্প্রীতির বন্ধন, দূর হোক সংকট: প্রধানমন্ত্রী. আজ রোববার উদযাপন হবে বই উৎসব. দুর্গম এলাকায় বিকল্প ব্যবস্থায় নতুন বই পাঠানো হবে: শিক্ষামন্ত্রী, নতুন বছরে নতুন শিক্ষাক্রম চালু হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী, নতুন আশা নিয়ে মধ্যরাতে বরণ করা হবে ২০২৩ সাল, সিডনিতে আতশবাজির মধ্য দিয়ে ‘নিউ ইয়ার’ বরণ, ইংরেজি নববর্ষ উদযাপনে পুলিশের কড়াকড়ি,আবারও প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা, সম্পাদক হলেন শ্যামল ,নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে কুয়াকাটায় পর্যটকের ঢল

টিকটক বাবুদের নারী পাচার চক্রের মূল আস্তানা ভারতে : পুলিশ

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৯ মে, ২০২১
  • ২০২ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্ক: এক তরুণীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে ভারতের বেঙ্গালুরুতে গ্রেফতার হৃদয় বাবু ওরফে ‘টিকটক বাবু’ আন্তর্জাতিক মানবপাচার চক্রে জড়িত বলে জানিয়েছে পুলিশ।পুলিশ জানায়, ‘টিকটক বাবু’ অপরাধীদের সাথে মিলে নারী পাচারের আন্তর্জাতিক চক্র গড়ে তুলেছিল। এই চক্রটির নেটওয়ার্ক বাংলাদেশ, ভারত ও মধ্যপ্রাচ্যের দুবাইসহ কয়েকটি দেশে বিস্তৃত।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের ডিসি মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ শনিবার বিকেলে তেজগাঁও উপ-কমিশনারের কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।ডিসি শহিদুল্লাহ বলেন, বাংলাদেশী এক তরুণীকে যৌন নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল হওয়ার ঘটনায় বাংলাদেশ ও ভারতের পুলিশ দ্রুততার সাথে তদন্তে নেমে আসামি ও ভিকটিমকে শনাক্ত করে। ইতিমধ্যে ভারতে ছয়জনকে গ্রেফতার হয়েছে। তারা সবাই আন্তর্জাতিক নারীপাচার চক্রের সদস্য বলে নিশ্চিত হয়েছে। তাদের পুলিশের এনসিবির মাধ্যমে দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছি।
তিনি আরো বলেন, ‘এই চক্রের সদস্যরা স্কুল-কলেজের বখে যাওয়া ছেলে-মেয়েদের টার্গেট করতো। বিশেষ করে টিকটক গ্রুপে অন্তর্ভুক্ত করে তারা পাচার কাজে সহযোগিতা করছিল। চক্রটির মূল আস্তানা ভারতের ব্যাঙ্গালুরুর আনন্দপুর এলাকায় বলে খবর পাওয়া গেছে।’

শহিদুল্লাহ বলেন, এ ঘটনায় ভারতেও মামলা হয়েছে এবং বাংলাদেশের মামলার প্রধান আসামিও টিকটক বাবু। পুলিশ জানিয়েছে, ‘টিকটক বাবু’ রাজধানীর মগবাজার এলাকার বাসিন্দা। নির্যাতনের শিকার মেয়েটিও ওই এলাকার। অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত পড়াশোনা করেছে সে। এরপর পড়াশোনা ছেড়ে বন্ধুদের নিয়ে টিকটক ভিডিও তৈরিতে জড়িয়ে পড়ে বাবু।
সূত্র : বাসস

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..