1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ১০:১১ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

হায় হোসেন হায় হোসেন ধ্বনিতে প্রকম্পিত কুলাউড়ার নবাব বাড়ী

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৯ জুলাই, ২০২৩
  • ২৯৪ বার পঠিত

হাসান আল মাহমুদ রাজু  :- হায় হোসেন হায় হোসেন ধ্বনিতে আর নিজ শরীর রক্তাত্ব করে কুলাউড়ার পৃথিমপাশার শিয়া সম্প্রদায়ের মুসলমানরা পালন করলো ১০ মহরম পবিত্র আশুরা।
২৯ জুলাই (শনিবার) দেশের বিভিন্ন স্থানের ন্যায় ধর্মীয় ভাবগাম্বীর্য  ও নানা আনুষ্ঠানিকতার মধ্যে দিয়ে দীর্ঘ আড়াইশ  বছরেরও বেশী সময় ধরে পালন করে আসা কুলাউড়া উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের নবাব বাড়িতে বর্ণাঢ্য আয়োজনে দিবসটি পালিত হয়েছে।
অপরদিকে ১০ মহরম বেলা সাড়ে ৪ টায় পৃথিমপাশা নাবাব বাড়ির হোসেনি দালান থেকে ধর্মীয় ভাবগাম্বীর্য  ও নানা আনুষ্ঠানিকতার মধ্যে দিয়ে বের হয় সু-সজ্জিত তাজিয়া মিছিল। শিয়া সম্প্রদায়ের কয়েক’শ পুরুষ যুদ্ধের নানা অনুসঙ্গ, তাজিয়া, কালো, লাল ও সবুজ নিশান উড়িয়ে মিছিলে অংশ নেয়। খালি পায়ে মিছিলে অশংগ্রহণ কারীরা শোকের প্রতিক কালো পোশাক পরিধান করে।

কারবালার নির্মম হত্যাকান্ড ও ইয়াজিদ বাহিনীর হাতে হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) এর  প্রাণপ্রিয় দৌহিত্র ইমাম হোসেন (রাঃ) শাহাদৎ বরণের শোকে কাতর হয়ে শিয়া সম্প্রদায়ের মুসলমানরা ধারালো ছোরাগুচ্ছ রশিতে বেধে নিজের শরীরেকে অবলীলায় রক্তাক্ত করে। ফলে বুক ও পিঠ থেকে ঝরছে রক্ত। কারো কারো কালো জামা রক্তে ভিজে চুপসে গেছে আর সাদা জামা হয়ে উঠে রক্তে লালে-লাল। তবুও ‘হায় হোসেন, হায় হোসেন’ ধ্বনিতে প্রকম্পিত হচ্ছে আকাশ-বাতাস। তাজিয়া মিছিলে বুক চাপড়ে, জিঞ্জির দিয়ে শরীরে আঘাত করে প্রকাশ করা হয় মাতম।

১০ মহরম শনিবার বেলা ৪ টায় নবাব বাড়ির হোসেনি দালান থেকে তাজিয়া মিছিলসহ ‘হায় হোসেন, হায় হোসেন’ ধ্বনিতে শিয়া সম্প্রদায়ের অনুসারীরা নিজের শরীর রক্তাক্ত করে মিছিলটি তাদের বাড়ির সামনে এগিয়ে পৃথিম পাশা এলাকার বিভিন্ন রাস্তা পদক্ষিন করে রবিরবাজার  পদ্দ দিঘির পারে নিয়ে যায়। সেখানে মহরমের সেই বিষাদময় দিনে ইমাম হোসেনের করুণ মৃত্যুর পতিবাদে হায় হোসের হায় হোসেন মাতম করে আবারও নিজের শরীর রক্তাক্ত করে কারবালার শোকে শোক পালন  করেন।
আসুরার সুখ মিছিল টি প্রতি বারের মত তাদের রবিরবাজার পদ্দ দিঘির পারে নিয়ে  সুখ মিছিল টি সমাপ্তি হয়। আসুরা অনুষ্টানে আইন শিংখুলা বাহিনি উপস্থিত ছিল।

মহরমের বিভিন্ন শোক অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে পৃথিমপাশা ওয়াকফ স্টেইটের যুগ্ন  মোতাওয়ালী ও সাবেক এমপি নবাব আলী আব্বাছ খান জানান, পৃথিমপাশায় প্রায় ২৫০ বৎসরের আগ থেকে মহরমের শোক অনুষ্ঠান পালিত হয়, প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও শান্তিপূর্ণ ভাবে শোক অনুষ্ঠান সম্পন্ন হওয়ায়  সংশ্লিষ্ট সকলকে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..