1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৩৮ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতন, দম্পতি গ্রেপ্তার

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৪ জুলাই, ২০২১
  • ২৪৮ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্ক: শিশু গৃহকর্মীর ওপর নিষ্ঠুরতার ঘটনায় রাজধানীর তোপখানা রো‌ড এলাকার একটি বাসা থেকে এক দম্পতিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ রোববার (৪ জুলাই) পুলিশের এআইজি (মি‌ডিয়া অ্যান্ড পাব‌লিক রি‌লেশন্স) মো. সো‌হেল রানার পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়।

এতে বলা হয়, নির্মমতার শিকার ১২ বছর বয়সী ওই গৃহকর্মীর নাম সুইটি। তার গ্রামের বাড়ি কিশোরগঞ্জ জেলার মিঠামইনে। অভাবের তাড়নায় দরিদ্র বাবা-মা তাকে রাজধানীর তোপখানা রোডের ওই বাসায় গৃহকর্মীর কাজে দিতে বাধ্য হন।জানা গেছে, সুইটি ৯ মাস ধরে ওই বাসায় কাজ করছে। প্রায় প্রতিদিনই তাকে নানা অজুহাতে গৃহকর্তা ও গৃহকর্ত্রী স্বামী-স্ত্রী উভয়েই মারধর করে। একপর্যায়ে মেয়েটিকে নির্যাতনে আঘাতের চিহ্নসহ কিছু ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট দেন এক প্রতিবেশী।

শনিবার রাতে ছবিগুলো পোস্ট দিয়ে তিনি দ্রুত সহযোগিতা ও আইনি ব্যবস্থার জন্য কথা লিখেন।ছবিতে মেয়েটির চোখের নিচে আঘাতের চিহ্ন। হাতে গুরুতর জখম এবং অপর একটি ছবিতে মেয়েটির পশ্চাৎদেশে উভয়পাশে আগুনে পোড়া ঘা চোখে পড়ে।

পোস্টটি এক সংবাদকর্মীর চোখে পড়লে তিনি তা পুলিশের মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইংকে পাঠিয়ে দ্রুত সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন।সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঘটনাস্থল কোন থানার অধীনে তা তাৎক্ষণিক নিশ্চিত না হওয়ায় মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স উইং বিষয়টি জানার সঙ্গে সঙ্গেই রমনা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. মনিরুল ইসলাম এবং শাহবাগ থানার ওসি মওদুত হাওলাদারের সঙ্গে যোগাযোগ করে এ‌ বিষ‌য়ে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশনা দেয়।

পরবর্তীতে জানা যায় ঘটনাস্থলটি শাহবাগ থানার অধীনে। এরপর ওসি শাহবাগ মওদুত হাওলাদারের তাৎক্ষণিক তৎপরতায় শাহবাগ থানার পরিদর্শক (অপারেশন্স) মো. কামরুজ্জামানের নেতৃত্বে এসআই মো. জাহাঙ্গীর আলমসহ পুলিশের একটি টিম ওই গৃহকর্মীকে উদ্ধার করে। একই সঙ্গে নির্যাতনের অভিযোগে অভিযুক্ত স্বামী মো. তান‌ভির আহসান এবং স্ত্রী অ্যাডভোকেট না‌হিদকে গ্রেপ্তার করে।

ফেইসবুকে দেওয়া পোস্টের মাত্র দেড় ঘণ্টার মধ্যে এবং বিষয়টি পুলিশের নজরে আসার মাত্র এক ঘণ্টার মধ্যে ভিকটিমকে উদ্ধার ও অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার করা হয়।অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..