1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  • E-paper
  • English Version
  • রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:০৬ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
করোনা আপডেট : ২৪ ঘণ্টায় ৩৮ জনরে মৃত্যু, শনাক্ত ২ হাজার ৩২৫

কমলগঞ্জ পৌরসভা ও নবধারার টিকা গ্রহনে বিনামূল্যে নিবন্ধন

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১ আগস্ট, ২০২১
  • ৮০ বার পঠিত

কমলগঞ্জ প্রতিনিধি: করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ও চা বাগানে করোনা সংক্রমিত হওয়ায় কমলগঞ্জের শমশেরনগর চা বাগানে চা ছাত্র-যুব পরিষদ ও বাগান পঞ্চায়েত চা-বাগান কর্তৃপক্ষের সাথে সমন্বয় করে নিজেদের আইসোলেশন সেন্টার স্থাপন করা হয়েছে। অপরদিকে কমলগঞ্জ পৌরসভার ও শমশেরনগর বাজারে স্থানীয় সমাজকল্যাণ মূলক সংস্থা নবধারা টিকা গ্রহনে উদ্বুদ্ধকরণে বিনামূল্যে নিবন্ধন কার্যক্রম চালু করেছে।
গত জুলাই মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় ও চা-শ্রমিকদের মাঝে করোনা সংক্রমিত হওয়ায় কমলগঞ্জের শমশেরনগর চা-বাগানে চা ছাত্র-যুব পরিষদ, জাগরণ যুব ফোরাম ও চা বাগান পঞ্চায়েত কমিটি স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধি চা বাগান এলাকায় মাইকিং শুরু করে। তারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে করোনা সংক্রমিতদের ঘরে খাদ্য ও পুষ্টি সম্পন্ন খাদ্য পৌছে দেন। করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিদের ১৪ দিন হোম আইসোলেশনে থাকারও পরামর্শ দেন। স¤প্রতি তারা আবার চা বাগান ব্যবস্থাপকর সাথে আলোচনা করে স্থানীয় চা বাগানের পুরাতন হাসপাতার পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করে সেখানে বেড স্থাপন করে নিজেদের একটি আইসোলেশন সেন্টার স্থাপন করে। এ সেন্টারে সাহায্যে পাওয়া অক্সিজেন সিলিন্ডারও রাখা হয়।
শমশেরনগর জাগরণ যুব ফোরাম সভাপতি ও চা ছাত্র যুব ফোরামের সভাপতি মোহন রবিদাস বলেন, এমনিতেই চা বাগানের মানুষজন অসচেতন। একবার যদি চা-বাগানে একটু করোনা সংক্রমণ শুরু হয় তা হলে ভয়াবহ অবস্থা হবে। সে জন্য আগে থেকেই তারা চা-বাগান এলাকায় সচেতনতামূলক কার্যক্রম শুরু করেছেন। এ কার্যক্রমে চা-বাগান পঞ্চায়েত কমিটি, ব্যবস্থাপক ও স্থানীয় ইউনিয়নের চেয়ারম্যানও তাদের সহায়তা করছেন। এ কার্যক্রমে তারা আগে থেকেই এ বাগানের পুরাতন হাসপাতাল ভবন ব্যবহার করে একটি আইসোলেশন সেন্টার স্থাপন করেছেন। কোন ঘরে করোনা সংক্রমিত হলে তাকে এ সেন্টারে এনে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হবে। এছাড়া তারা চা প্লান্টেশন এলাকায় গিয়ে কর্মরত নারী চা শ্রমিকের মাঝে মাস্ক ও বিতরণ করেন।
এদিকে কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মো. জুয়েল আহমেদ উদ্যোগে প্রতিটি ওয়ার্ডে মাইকিং করে পৌর কার্যালয়ে ও নিজ বাসভবনে বিনা মূল্যে ফ্রী করোনা রেজিষ্টশনের আয়োজন করেছেন। অন্য দিকে করোনার টিকা গ্রহনে উদ্ধুদ্যকরণে সমাজ সেবামূলক সংস্থা নবধারা শমশেরনগর রোববার সকাল ১১টা থেকে শমশেরনগর রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় বিনামূল্যে টিকার নিবন্ধন কার্যক্রম চালু করেছেন। নবধারা শমশেরনগরের সমন্বয়ক প্রভাষক আবু সাদাত মো. সায়েম বলেন, প্রতিটি দূর্যোগের সময় তাদের সংস্থা মানব সেবায় কাজ করে যাচ্ছে।
পৌর মেয়র মো. জুয়েল আহমদ বলেন, এখন করোনার টিকা গ্রহন অত্যাবশ্যক বলে, সাধারণ অস্বচ্ছল মানুষদের বিনামূল্যে করোনা টিহার নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে। এখন থেকে প্রতিদিনই এভাবে নিবন্ধন ফ্রী করা হবে।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..