1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
ব্রেকিং নিউজ :
 করোনা আপডেট :   করোনায় আরও ৪৪ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৩২২

প্রেমটা আপাতত আমি অভিনয়ের সঙ্গেই করতে চাই : প্রিয়মনি

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৫ মে, ২০২১
  • ২১ বার পঠিত

ডেস্ক রিপোর্ট :: তিন বোনের সবার ছোট তিনি। পরিবারের মানুষরা আহ্লাদী মেয়েটিকে একটু বেশি ভালোবাসে। মনি বলেই ডাকেন তারা। কেউ আবার ডাকেন প্রিয়। এভাবেই তার নাম হয়ে যায় প্রিয়মনি। দেশীয় চলচ্চিত্র একজন সম্ভাবনাময়ী মুখ তিনি।

৫ ফুট ৮ ইঞ্চি উচ্চতার প্রিয়মনির স্বপ্ন ছিল পুলিশ অফিসার হওয়ার। পড়াশোনা সেভাবেই এগিয়ে নিচ্ছিলেন তিনি। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবিএ পঞ্চম সেমিস্টারের পড়ছেন। বছর দেড়েক আগে শখের বসে র‍্যাম্পের ঝলমলে মঞ্চে পা রাখেন। সেটি খুব বেশিদিন আগের কথা নয়। নিজেকে ফিট রাখার জন্য নিয়মিত করেন জিম।

র‍্যাম্প আর পড়াশোনা করেই কাটছিল প্রিয়মনির দিন। একদিন চ্যানেল আইতে একটি সাক্ষাৎকার দিতে যান। সেখানেই ইমপ্রেস টেলিফিল্ম ও চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রহমান সাগরের সঙ্গে তার সাক্ষাৎ। সেই পরিচয়ের সূত্র ধরেই প্রস্তাব পান চলচ্চিত্রে কাজের। ছবির নাম ‘ভালোবাসার প্রজাপতি’। যেখানে একজন ফ্যাশন মডেলের ভূমিকায় দেখা যাবে তাকে।

প্রিয়র ভাষ্য, তার মতো একজন গুণী মানুষের কাছে থেকে চলচ্চিত্রে কাজের প্রস্তাব পেয়ে কী করবো বুঝে উঠতে পারছিলাম না। বিষয়টি নিয়ে বাবার সঙ্গে কথা বলি। সব কিছু শুনে তিনিও আপত্তি করেননি। ছবিটির এখনো গান ও কিছু দৃশ্যধারণ বাকি রয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে সরব প্রিয়মনি। সেখানেই নিজের নাচের ভিডিও পোস্ট করেছিলেন। ওই ভিডিওটি পরিচালক অনন্য মামুনের এক সহকারীর নজরে আসে। পরিচালক তখন তার নতুন চলচ্চিত্রের জন্য নায়িকা খুঁজছিলেন। প্রিয়র সেই নাচ দেখে মুগ্ধ হন মামুন। নিজে থেকেই যোগাযোগ করেন, দেন নায়িকা হওয়ার প্রস্তাব।

প্রিয়মনির ভাষ্য, আমি যখন কসাই চলচ্চিত্রে কাজের অফার পাই। মামুন ভাই সেসময় নবাব এলএলবি ছবিটি নির্মাণ করছেন। শাকিব খান ও মাহিয়া মাহির মতো তারকা শিল্পীরা কাস্টিং ছিল। সত্যি কথা বলতে আমি মামুন ভাইকে সেভাবে চিনতাম না। শুধু ওইটুকু জেনেই রাজি হয়ে যাই। পরে কাজ করতে গিয়ে জানতাম তিনি গুণী একজন নির্মাতা।

কসাইতে প্রিয়র নায়ক ছিলেন নিরব। মজার ব্যাপার হলো তাদের জন্মস্থান বা গ্রামের বাড়ি একই এলাকায়। রাজবাড়ীতে। ফলে পরিচালক এই দুজন মানুষকে জুটি করে ছবি নির্মাণ করে একটা নতুন রসায়ন আনতে চেয়েছিলেন।

প্রিয় বলেন, ছবিটির শুটিং হয়েছিল রাজবাড়ীতে। এজন্য আমি এবং নিরব ভাইয়া দুজনেই খুব এক্সাইটেড ছিলাম। জানেন কাজটির জন্য আমাদের কতো কষ্ট করতে হয়েছে? আমাদের জন্য কোনো হোটেলের ব্যবস্থা ছিল না। তীব্র শীতে পাতলা একটা শাড়ি পরে শুটিং করেছি। আর রাতের বেলায় কম্বল পেতাম তো বালিশ পেতাম না। এমন একটা জায়গাতে শুটিং করেছি চাইলেই এসব ম্যানেজ করা সম্ভব হতো না। তবে আমি সমস্যার কথা পরিচালককে কখনোই বলিনি। একটা কথাই ভেবেছি তারা কী মনে করবেন। আমি আসলে মামুন ভাইয়ের কাছে ভীষণ কৃতজ্ঞ। এমন কাজের সুযোগ দেয়ার জন্য।

তিনি আরও বলেন, এবার ঈদে কসাই রিলিজ হলো এই সময়টা আমি গ্রামের বাড়ি ছিলাম। আমার মা বেঁচে নেই। বাড়িতে স্বজনদের সঙ্গে ঈদের সময়টা কাটাতে ভালো লাগে। জানেন, গ্রামে গিয়ে আমি একদম অনলাইনের বাইরে ছিলাম। আমাদের ফিল্মটি রিলিজের ব্যাপারে সব কথা বার্তা অনলাইনে গ্রুপে হতো। কিন্তু গ্রামে নেটের সমস্যা থাকায় আমি জানতেই পারিনি আই থিয়েটারে ছবিটি রিলিজ হয়েছে। ঈদের পর ঢাকায় এসে জানলাম।

চলচ্চিত্রে আগের সেই জৌলুস নেই। ছবির নির্মাণও কমে গেছে। এমন সময়ে নায়িকা হিসেবে অভিষেক হলো তাও ওটিটিতে। নিজের ভবিষ্যৎ আসলে কোথায় দেখছেন প্রিয়মনি। জবাবে তিনি বলেন, দেখুন ভেবেছিলাম পুলিশের চাকরি করবো। তবে কসাই রিলিজ হওয়ার পর চলচ্চিত্রের গ্রুপগুলোতে আমাকে নিয়ে দর্শকদের যে উচ্ছ্বাস দেখেছি। আমি চলচ্চিত্রেই স্থায়ী হতে চাই। কেউ কেউ লিখেছে, এতোদিনে একজন মনের মতো নায়িকা পেলাম। আমি স্ক্রিন শটগুলো আপনাকে পাঠাবো। আর করোনা পরিস্থিতি ভালো হলে সিনেমা হলেও কসাই রিলিজ হবে। তখন হয়তো আরও বেশি মানুষ ছবিটি দেখবেন, বেশি রেসপন্স পাবো।

প্রিয়মনি নাচ শিখেছেন। এক্ষেত্রে সিদ্ধ হস্ত তিনি। র‍্যাম্পে হাঁটায় গ্লামার প্রদর্শন ও সাহসী পোশাকে সাবলীল। কিন্তু অভিনয়ের ক্ষেত্রে কী কোনো প্রস্তুতি ছিল? নায়িকার সোজা উত্তর, আমার কাছে মনে হয় অভিনয় শেখার কিছু নেই, এটা গড গিফটেড। আমি ছোট বেলা থেকে শাবানা ম্যাম, ববিতা ম্যাম, শাবনূর ম্যামের অন্ধ ভক্ত। বাংলা চলচ্চিত্র দেখেই বড় হওয়া। শাবনূর ম্যামকে এখনো সামনে দেখার সুযোগ হয়নি। যদি কোনোদিন সুযোগ হয় এক ঘণ্টা তাকে জড়িয়ে ধরে রাখবো।

প্রেম বিয়ের প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, প্রেম, বিয়ের কথা এখনই ভাবছি না। আর হ্যাঁ, প্রেমটা আপাতত আমি অভিনয়ের সঙ্গেই করতে চাই। দর্শকদের ভালোবাসা পেতে চাই।

সামনে আপনার নতুন কোনো কাজ আসছে? প্রিয়মনি বলেন, কসাই রিলিজ হওয়ার পর কিছু ওয়েব ফিল্মে কাজের অফার পেয়েছি। শিগগিরই ছবিগুলোর বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আসবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..