1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১২:৪৮ পূর্বাহ্ন

হেফাজতের হরতালে আ. লীগ ও শিবির, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২৮ মার্চ, ২০২১
  • ৫২ বার পঠিত

সিলেট প্রতিনিধি : হেফাজতের ইসলামের ডাকা হরতালে সকাল থেকেই সিলেটের বিভিন্ন সড়কে অবস্থান নিয়েছে আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠন। সকালে হেফাজতের নেতাকর্মীরাও সড়কে অবস্থান নেয়। আর দুপুরের দিকে নগরের কোর্ট পয়েন্ট এলাকায় জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করার চেষ্টা করে ছাত্রশিবির। এসময় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের সাথে তাদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। এতে আহত হয়েছেন ৫ জন। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৫ জনকে আটক করেছে।

হেফাজতের ডাকা হরতাল সিলেটে সকাল থেকেই ঢিলেঢালাভাবে পালিত হচ্ছে। হরতালে বন্ধ রয়েছে দেকানপাট। সকালে যান চলাচল কম থাকলেও বেলা বাড়ার সাথেসাথে যান চলাচল বাড়ছে। হরতালে নাশকতা এড়াতে নগরজুড়ে বিপুল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েনর করা হয়েছে।

সকালেই নগরের কোর্ট পয়েন্ট এলাকায় অবস্থান নেয় হেফাজতকর্মীরা। সেখানে সড়কে অবস্থান নিয়ে তারা বিক্ষোভ করেন। কোর্টপয়েন্ট-চৌহাট্টা সড়কে মিছিলও করে হেফাজত।

সকাল ১১ টার দিকে বন্দরবাজার এলাকার জেলা পরিষদের পাশে অবস্থান নেয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা পৃথক মিছিল নিয়ে এই স্থানে এসে জড়ো হন। পরে দুপুরে বন্দরবাজার থেকে চৌহাট্টা পর্যন্ত বিক্ষোভ মিছিল করেন তারা। দুইপক্ষের পাল্টাপাল্টি অবস্থান ও শোডাউনে ওই এলাকায় আতঙ্ক দেখা দেয়।

এসময় হেফাজত নেতাকর্মীদের সাথে ছাত্রলীগের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। পরে বন্দরবাজার এলাকায় শিবির নেতাকর্মীরা জড়ো হওয়ার চেষ্টা করলে তাদের ধাওয়া করে ছাত্রলীগ। এসময় দুই পক্ষে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ায় স্থানীয় ব্যবসায়ী ও শ্রমিকরাও জড়িয়ে পড়েন বলে জানা গেছে। এসময় তিন দফা ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। পড়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। এতে অন্তত ৫ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

সিলেট কতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম আবু ফরহাদ বলেন, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার সময় ৫ জনকে আটক করা হয়েছে। এরা সবাই শিবির কর্মী। এছাড়া কয়েকজন আহত হয়েছে বলে শুনেছি। তবে সঠিক সংখ্যা এখনো জানতে পারিনি।

তিনি বলেন, হেফাজতের কর্মীরা শান্তিপূর্ণভাবেই অবস্থান নিয়েছিলো। তবে দুপুরের দিকে শিবির মাঠে নেমে বিশৃঙ্খলার চেষ্টা করে। পুলিশ তাদের প্রতিহত করেছে।

বন্দরবাজারের এই ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ছাড়া নগরীতে হরতাল চলাকালে আর কোনো সহিংসতার খবর পাওয়া যায়নি। শান্তিপূর্ণভাবেই পালিত হচ্ছে হরতাল। সকালে নগরের কয়েকটি সড়কে বিক্ষোভ কররলেও দুপুরের পর থেকে সড়কে হেফাজতকর্মীদের উপস্থিতি কমে এসেছে। হরতালে দুরপাল্লার বাস চলাচল বন্ধ থাকলেও ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। খোলা রয়েছে সরকারি-বেসরকারি অফিস।

তবে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলায় হরতালকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে এখনও এ ঘটনার বিস্তারিত জানা যায়নি।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ কমিশনার (গণমাম্যম) বিএম আশরাফ উল্ল্যাহ তাহের বলেন, হরতালের নামে যে কোনো ধরণের নাশকতা এড়াতে পুলিশ সর্বোচ্চ প্রস্তুত রয়েছে। নগরের মোড়ে মোড়ে পোষাকধারী পুলিশের পাশপাশি সাদা পোষাকে পুলিশ, আর্মড ব্যাটেলিয়ানও রয়েছে। মানুষের জানমালের নিরাপত্তা ও রাষ্ট্রিয় সম্পদ রক্ষায় পুলিশ সবসময় সতর্ক থাকবে।

তিনি বলেন, পুলিশ ছাড়াও বিজিবি সদস্যরা নগরে টহল দিচ্ছেন। এছাড়া ৬ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটও মাঠে রয়েছেন।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..