1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৯:০৮ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
করোনা আপডেট : ২৪ ঘণ্টায় ৩৮ জনরে মৃত্যু, শনাক্ত ২ হাজার ৩২৫

সঙ্গিনীকে বশে রাখবেন যে উপায়ে

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১০ মে, ২০২১
  • ৬৫ বার পঠিত

লাইফস্টাইল ডেস্ক : মেয়েদের মন বোঝা দায়- এমন কথা ছেলেদের কাছ থেকে প্রায়ই শোনা যায়। সঙ্গিনীর মেজাজ বুঝে চলতে গিয়ে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয় ছেলেদের। কেন মেয়েরা কথায় কথায় এত রাগ করে বলুন তো!

আসলে নিজের সঙ্গীর মধ্যে কয়েকটি অভ্যাস বা স্বভাব একেবারেই মেনে নিতে পারেন না। আর যেগুলি পছন্দ করেন না, সেগুলিই তার সঙ্গীর মধ্যে লক্ষ্য করলে চটে যান মেয়েরা। আসুন জেনে নেওয়া যাক সেই বিষয়গুলি সম্পর্কে যেগুলি মেয়েরা একেবারেই পছন্দ করেন না বা তাঁদের রাগিয়ে দিতে পারে-

১) বাড়ির বেশিরভাগ কাজ মেয়েরাই করে থাকেন। চেষ্টা করুন সঙ্গিনীর কাজকেও সমান গুরুত্ব দিতে। ওই বিষয়গুলিতে কথা উঠলে, সেগুলি মন দিয়ে শুনুন, পারলে প্রশংসাও করুন। এই বিষয়গুলিতে তাঁকে গুরুত্ব না দিলেই বিপদ!

২) মেয়েরা তার সঙ্গীর কাছ থেকে মিথ্যা কথা একদমই সহ্য করতে পারেন না। যত সমস্যাই হোক, তাঁদের সত্যিটাই বুঝিয়ে বলার চেষ্টা করুন। কারণ, আপনার মিথ্যা ধরা পড়ে গেলেই শুরু হতে পারে দীর্ঘমেয়াদী অশান্তির!

৩) মেয়েরা কখনওই তার পরিবার বা প্রিয় বন্ধুদের সম্পর্কে কোনও রকম সমালোচনা সহ্য করতে পারেন না। তাই সঙ্গিনীর সামনে তার আপনজনদের সম্পর্কে সমালোচনা না করাই ভাল।

৪) মেয়েরা একটু বেশিই অভিমানী। তাই ছোট ছোট বিষয় হলেও, কথা দিয়ে কথা রাখার চেষ্টা করুন।

৫) কখনই নিজের সঙ্গিনীকে অন্য কারও সঙ্গে কখনওই তুলনা করবেন না। এতে তারা মনে কষ্ট পেতে পারেন।

৬) সঙ্গিনী অভিমান করলে অবশ্যই তাকে মানানোর চেষ্টা করুন। মেয়েরাও সেটাই আশা করেন তার সঙ্গীই অভিমান ভাঙানোর চেষ্টা করবেন। তাই সঙ্গিনীর অভিমানের কারণ বুঝে তাকে মানানোর চেষ্টা অবশ্যই করুন।

৭) আপনার সঙ্গিনীর উপস্থিতিতে কখনও সেখানে উপস্থিত কোনও তৃতীয় ব্যক্তিকে বেশি গুরুত্ব দেবেন না। কোনও পুরনো বন্ধু বা পরিচিত কেউ সামনে থাকলেও সমান ভাবে সঙ্গিনীকেও সময় দিন।

৮) মেয়েদের বেশি অপেক্ষা করাবেন না। কোথাও ঘুরতে যাওয়া বা ডেটের ক্ষেত্রে সব সময় সময় মতো পৌঁছানোর চেষ্টা করুন। কারণ, অপেক্ষা করতে হলেই মেয়েদের মেজাজ বিগড়ে যেতে পারে।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..