1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • রবিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২৩, ০৭:১১ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
মৌলভীবাজারের ৫টি রেলওয়ে স্টেশন বন্ধ থাকায় এখন ভুতুরে বাড়ি: যাত্রী দুর্ভোগ চরমে: চুরি ও নষ্ট হচ্ছে রেলওয়ের মুল্যবান সম্পদ,নতুন বছরে দৃঢ় হোক সম্প্রীতির বন্ধন, দূর হোক সংকট: প্রধানমন্ত্রী. আজ রোববার উদযাপন হবে বই উৎসব. দুর্গম এলাকায় বিকল্প ব্যবস্থায় নতুন বই পাঠানো হবে: শিক্ষামন্ত্রী, নতুন বছরে নতুন শিক্ষাক্রম চালু হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী, নতুন আশা নিয়ে মধ্যরাতে বরণ করা হবে ২০২৩ সাল, সিডনিতে আতশবাজির মধ্য দিয়ে ‘নিউ ইয়ার’ বরণ, ইংরেজি নববর্ষ উদযাপনে পুলিশের কড়াকড়ি,আবারও প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা, সম্পাদক হলেন শ্যামল ,নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে কুয়াকাটায় পর্যটকের ঢল

শাকিব,অপু ও সন্তানসহ নানা প্রশ্নের দিলেন বুবলী (ভিডিও)

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২২
  • ৩০ বার পঠিত

অনলাইন ডেস্ক :: বেবি বাম্প দিয়ে শুরু, পরে শাকিব খানের সঙ্গে বিয়ের খবর, সন্তান শেহজাদ খান বীরকে সামনে আনা, বিয়ের তারিখ জানানো, সন্তানের জন্মতারিখ প্রকাশ করেন অভিনেত্রী বুবলী।

কিন্তু আরও অনেক প্রশ্ন পিছু ছাড়ছিল না বুবলীর। এর সঙ্গে যুক্ত হচ্ছিল সমালোচনা।

এমন নানা বিষয় নিয়ে রোববার সন্ধ্যায় নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে ৪১ মিনিটের একটি ভিডিও বার্তা দিয়েছেন অভিনেত্রী বুবলী।

সেখানে তিনি শাকিব খান-অপু বিশ্বাসের সম্পর্ক ভাঙার কারণ যে তিনি নন, সেটি প্রমাণ করার চেষ্টা করেছেন।

শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের সম্পর্কের কথা জানতেন না দাবি করে বলেন, ‘২০১৭ তে শাকিব-অপুর বিয়ের বিষয়টি জানার কিছু আগে তিনি (শাকিব খান) আমাকে বলতেন যে, কিছু বিষয় তিনি আমার সঙ্গে শেয়ার করবেন। ওই সময় আমরা সিঙ্গেল ছিলাম, ওই ভাবেই তিনি প্রেজেন্ট করেছেন বা তিনি হয়তো ভেবেছেন বিষয়টি পরে বলবেন। একটা ভালো লাগার বিষয় তো ছিলই, সেটা যে প্রথম সিনেমা থেকেই, তা না। খুব প্রেম, বন্ধুত্ব যে প্রথম থেকেই ছিল তা না। তবে তিনি চাচ্ছিলেন সেটেল হতে।

‘২০১৭ তে যখন বিষয়টি সবার সামনে আসলো এবং আমি তাকে জিজ্ঞেস করলাম, তখন তিনিও অবাক হয়েছেন যে সেসব ভিডিওতে আমার প্রসঙ্গটা কেন আসল।’

বুবলী বলেন, ‘২০১৭ সালের ১০ এপ্রিল লাইভ অনুষ্ঠানে আসার আগে আমাকে অপু বিশ্বাস ফোন করেছিলেন এবং অনেক বাজে ব্যবহার করেছিলেন, আমি বুঝতে পারিনি কেন এমন বাজে ব্যবহার করছেন। সেই কষ্ট থেকেই কিন্তু তিনি লাইভে আসার পর আমি স্ট্যাটাসটা দিয়েছিলাম। আমার কষ্টের জায়গাটা হলো, আমি তো এসবের (শাকিব খান, অপু বিশ্বাসের সম্পর্ক) কিছুই জানিনা। যেভাবে আমাকে প্রেজেন্ট করা হয়েছে, সেখানে তো আমি নেই।’

বিচ্ছেদের পর কেউ যদি অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান, তাহলে কি সেটা সেই নতুন মানুষটির দোষ? প্রশ্ন রেখে বুবলী বলেন, ‘তাদের ডিভোর্স হয়ে যাওয়া সম্পূর্ণ তাদের ব্যক্তি স্বাধীনতা। তারা তো ম্যাচিওর। শাকিব খান নিজেই আমাকে বলেছেন যে তিনি অপু বিশ্বাসের সঙ্গে সুখী নন। তিনি তার জায়গা থেকে আমাকে অনেক কিছুই বলেছেন। যেটা আমি তার সম্মানার্থে আগেও বলিনি, আজও বলবো না। এটুকু বলি, আমি তো অনেক পরে এসেছি, তাদের সমস্যাগুলো তো অনেক আগে থেকেই।’

অপু বিশ্বাসকে চারবার গর্ভপাত করাতে হয়েছে উল্লেখ করে বুবলী বলেন, ‘কোনো হ্যাপি ফ্যামিলিতে কেউ কখনও বাচ্চা চাই অথবা সংসার চাই ধরনের কথা বলে কি না আমার জানা নেই। এসব ঘটনা যখন ঘটে তখন তো আমি ছিলাম না, তাহলে আমাকে কেন জড়ানো হলো। কেন বলা হলো আমার কারণে কারও সংসার ভেঙেছে, আমার কারণে কারও সম্পর্ক ভেঙেছে, কারও সুখের জায়গায় সমস্যা হয়েছে। আমি দর্শকদের স্পষ্ট করে বলতে চাই যে, এ সময়ে আমি ছিলাম না। আমার কারণে কোনো সংসার ভাঙেনি।’

ভিডিওতে তিনি আরও কথা বলেছেন নিজের জন্মদিনে শাকিব খানের দেয়া নাকফুল, তাজমহলে শাকিব খানের সঙ্গে ছবি, শাকিব খানের অর্থ সহায়তা দেয়ার গুঞ্জন, ভুল তথ্য দেয়া, শাকিবের বড় ছেলে জয়ের জন্মদিনে তার বেবি বাম্পের ছবি দেয়ার মতো নানা বিষয় নিয়ে।

শাকিবের বড় ছেলে আব্রাম খান জয়ের জন্মদিনে বুবলী তার বেবি বাম্পের ছবি প্রকাশ নিয়ে বলেন, ‘জয়ের ব্যাপারে আমি শাকিব খানকে সবসময় পজিটিভলি দেখতে বলি। জয়কে কতটা সাপোর্ট করি সেটা শাকিব খান ভালো জানেন। ছোট বেলা থেকেই, যখন থেকে আমি জেনেছি, জয় কোন স্কুলে পড়বে, কি করলে ওর ভবিষ্যৎ ভালো হবে সব কিছু নিয়েই আমি পরামর্শ দিয়েছি শাকিব খানকে। জয় এবার সম্ভবত ৬ বছরে পরলো। কই আগের বছরগুলোতে তো আমি কিছু করিনি। গত বছরেও তো কিছু করিনি। গত বছর বা তার আগের বছরেও তো আমার নিজের সন্তানও ছিল।’

বুবলী জানান, তিনিও তো মানুষ, তার কষ্ট, ইমোশন থাকতে পারে। বুবলী তার ইমোশনের জায়গা থেকে বেবি বাম্পের ছবি শেয়ার করেছিলেন বলে দাবি তার।

অনেকে বলেন বুবলী নাকি শাকিব খানের কাছ থেকে অর্থিক সহায়তা নেন। বিষয়টিকে ‘ভুল’ বলে দাবি করেন বুবলী। বলেন, ‘আমার বিয়ের পর থেকে এবং আমাদের সন্তান পৃথিবীতে আসার পর থেকে কোনো আর্থিক সাপোর্ট তার কাছ থেকে নেইনি। তিনি স্বামী হিসেবে, বাবা হিসেবে যতটুকু করেন, সেটাই। এটা তার ওপর। আমেরিকাতে যখন আমার বেবিকে নিয়ে ছিলাম। এক বছরে অনেক খরচ হয়েছে। সেখানে ১৫ হাজার ডলার তিনি দিয়েছিলেন এবং আমি প্রায় ৩০ হাজার ডলার আমি খরচ করেছি।’

বুবলীর জন্মদিনে শাকিব খান উপহার হিসেবে নাকফুল দিয়েছেন বলে জানিয়েছিলেন বুবলী। পরে শাকিব খান গণমাধ্যমে জানিয়েছিলেন, তিনি কোনো নাকফুল দেননি। এ দিয়ে বুবলী ভিডিওতে বলেন, ‘স্বামী যদি স্ত্রীকে কোনো কিছু উপহার দেন এবং সেটি যদি প্রমাণ করতে হয়… এ নিয়ে কিছু বলতে চাই না। তার যেটা ভালো মনে হয়েছে, তিনি সেটা বলেছেন। এটা যদি আমি প্রমাণ করতে যাই, তাহলে তাকে অসম্মান করা হয়।’

বুবলী তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে ২১ নভেম্বর একটি ছবি পোস্ট করেন। বুবলী জানান, শাকিব খান ও তিনি তাজমহলে ঘুরতে গিয়েছিলেন, ছবিটি সেই সময়ের। এটি নিয়েও কেন জবাবদিহি করতে হবে, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন বুবলী। তিনি বলেন, ‘ছবিটি যখন তোলা হয়, তখন তো সবাই বিষয়টা জানতেন না। তাই ছবিটি তখন প্রকাশ করা যায়নি। এখন আমার মনে হয়েছে যে সুন্দর এ স্মৃতিগুলো সবার সঙ্গে শেয়ার করি, তাই পোস্ট করেছি।’

অনেকেই নাকি বলছেন যে আমেরিকা থেকে ফেরার পর অনেক কথা অন্যরকমভাবে বলেছেন বুবলী। তার ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে অভিনেত্রী বলেন, ‘আমেরিকা থেকে ফেরার পর আপনাদের ভুল স্টেটমেন্ট আমি দেয়নি। প্রশ্ন করলে আমি বলেছি যে, ব্যক্তিগত কাজ নিয়ে আমি বাইরে ছিলাম, সময় হলে সব জানাব। মা হওয়ার বিষয়ে প্রশ্ন করলে আমি বিষয়টি আমি অন্যভাবে উত্তর দিয়েছি। কারণ সেই সময়টা ভালো সময় ছিল না উত্তর দেয়ার জন্য। আমি বলেছিলাম নিউ ইয়র্ক ফিল্ম অ্যাকাডেমিতে কোর্স করেছি এবং সেটা আসলেই করেছি, আমার কাছে তার সার্টিফিকেট আছে।’

ভিডিওর একদম শেষের অংশে বুবলী বলেন, ‘কিছু জিনিস শেয়ার করেছি আমার সন্তানের জন্য। ও তো বড় হচ্ছে এবং আপনারা অনেক সময় ওকেও বিভিন্ন বিষয়ে ইনভলব করে ফেলেন। ওর কোনো দোষ নেই, ও তো ছোট মানুষ।’

বুবলীর কথায় স্পষ্ট হয়ে ওঠে বাচ্চাকে পরিচয় করিয়ে দেয়ার জন্য প্রায় তিন বছর অপেক্ষা করেও তা না পারার আক্ষেপ।

বুবলী বলেন, ‘ওর তো তিন বছর প্রায়। আমরা চেয়েছিলাম যে, আমরা একসঙ্গে খুব সুন্দরভাবে ওকে সামনে আনার, হয়তো হচ্ছিল না কোনোভাবে। আমি তো অলরেডি তিন বছর ওয়েট করেছি। ওর বিষয়টা সামনে আনার পরেও কিন্তু আমি কারও বিষয়ে কোনো অভিযোগ করিনি, আজকেও করছি না।’

শেহজাদের জন্যই আসলে বুবলীর এ কথা বলা বলে উল্লেখ করেন তিনি। বলেন, ‘না হলে ও হয়তো কখনও কোনো সময় প্রশ্ন করবে, মা তুমি তো কোনো কথা বলোনি কখনও।’

সন্তান সেহজাদের উদ্দেশে বুবলী বলেন, ‘বাবা শেহজাদ, মা হয়ে তোমার পাশে সারা জীবন থাকব না বাবা। কিন্তু অন্যান্য মায়ের মতো তোমার জন্য অনেক কষ্ট করেছি এবং করছি। তোমাকে পৃথিবীতে আনা, তোমাকে বড় করা।

’আমি সব সময় তোমার পাশে ছিলাম, আছি থাকব। তুমি মানুষের মতো মানুষ হও বাবা এবং একটি কথা মনে রেখো, তোমার মা-বাবা তোমাকে অনেক ভালোবাসে। আমি হয়তো আমার জায়গা থেকে সব সময় তোমাকে সেরাটা দিতে পারি না। তোমাকে অনেক ভালোবাসি।’

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..