1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

মৌলভীবাজারে কমেছে মুরগির দাম: সবজির বাজারে আগুন

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ১৫ মার্চ, ২০২৪
  • ১১০ বার পঠিত

স্টাফ রিপোটার: ব্রয়লার মুরগি কয়েক সপ্তাহ ধরে ২২০-২২৫ টাকা বিক্রির পর অবশেষে কেজিপ্রতি ১৫ থেকে ২০ টাকা কমেছে। বাজারে প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগির দাম এখন ২০৫ টাকা। তবে মুরগির দাম কমলেও তেমন কোনো সুখবর নেই সবজি বাজারে। আগের মতো চড়া দামেই কিনতে হচ্ছে বেগুন, শসা, করোলাসহ সব ধরনের সবজি। এদিকে ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানির কারণে সপ্তাহের ব্যবধানে দাম কিছুটা কমেছে মসলা পণ্যটির।
আজ শুক্রবার পশ্চিমবাজার.কোর্ট মার্কেট ও চৌমুহনা বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে। বাজার ঘুরে দেখা যায়, ২০৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে ব্রয়লার মুরগি। এছাড়া সোনালি মুরগি ৩২০ টাকা, সোনালি হাইব্রিড ৩০০ টাকা, দেশি মুরগি ৬৮০ থেকে ৭০০ টাকা কেজি, লেয়ার মুরগি ২৯৫ টাকা এবং সাদা লেয়ার ২৭০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। তবে আগের জায়গায় স্থির রয়েছে ডিমের দাম। এক ডজন লাল ডিম ১৪০ টাকা, হাঁসের ডিম ২২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। দেশি মুরগির ডিমের হালি ৮৫ টাকায় বিক্রি করতে দেখা গেছে।
মাংসের বাজার ঘুরে দেখা যায়, গরুর মাংস কেজিপ্রতি ৭৫০ টাকা এবং খাসির মাংস ১ হাজার ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।
টিসি মার্কেট ও পশ্চিম বাজারের কাচাবাজার ঘুরে দেখা যায়, রমজানের প্রথম দিন ৯০ টাকা কেজি দরে প্রতি কেজি শসা বিক্রি হলেও চতুর্থ রমজানে এসে বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ১০০ টাকা করে।

এই বাজারে গ্রীষ্মকালীন সবজি কচুরমুখীর দাম ১০০ টাকা কেজি, বেগুন ৬০থেকে ৮০টাকা, করলা ৮০টাকা, ঢেঁড়স ৮০টাকা, বরবটি ১৪০ টাকা, খিরা ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। লাউ প্রতিটি বিক্রি হচ্ছে ৬০ থেকে ৮০ টাকা করে। পেঁপে প্রতি কেজি ৫০ টাকা, ধুন্দুল ৮০ টাকা, চিচিঙ্গা ৮০ টাকা, ঝিঙ্গা ১০০ টাকা, পটল ৯০ টাকা ও সজনে ডাটা ২৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।
বাজারে প্রতি কেজি মুলা ৪০ টাকা, শিমের কেজি ৪০ থেকে ৫০ টাকা, ফুলকপি প্রতিটি ৪০থেকে ৫০টাকা, বাঁধাকপি প্রতিটি ৪০ থেকে ৫০ টাকা, ব্রকলি প্রতিটি ৩০ টাকা, পাকা টমেটো প্রকার ভেদে ৪০ থেকে ৬০ টাকা কেজি, গাজর ৩০ থেকে ৪০ টাকা এবং আলু ৩৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া লেবুর হালি ৪০ থেকে ৮০ টাকা, ধনে পাতার কেজি ২০০ থেকে ২২০ টাকা, কলার হালি ৪০ টাকা, মিষ্টি কুমড়ার কেজি ৪০ থেকে ৫০ টাকা এবং কাঁচা মরিচের কেজি ৮০ থেকে ১২০ টাকা। লাল শাকের আঁটি ১৫ টাকা, লাউ শাক ৩০ টাকা, মুলা শাক ১৫ টাকা, পালং শাক ১০ থেকে ১৫ টাকা, কলমি শাক ১০ টাকা।

বাজারে ৪০০ গ্রাম ওজনের ইলিশ মাছ ৯০০ টাকা কেজি, চাষের শিং আকারভেদে ৩৫০ থেকে ৬০০ টাকা, রুইয়ের দাম কেজিতে বেড়ে (আকার ভেদে) ৪০০ থেকে ৫৫০ টাকা, মাগুর ৭০০ থেকে ১ হাজার টাকা, মৃগেল ৩০০ থেকে ৪৫০ টাকা, পাঙাশ ২০০ থেকে ২২০ টাকা, চিংড়ি ৮০০ থেকে ১২০০ টাকা, বোয়াল ৫০০ থেকে ৯০০ টাকা, কাতল ৪০০ থেকে ৬০০ টাকা, পোয়া মাছ ৪০০ থেকে ৪৫০ টাকা, পাবদা ৪০০ থেকে ৪৫০ টাকা, তেলাপিয়া ২২০ টাকা, কই ২২০ থেকে ২৪০ টাকা, মলা ৫০০ টাকা, বাতাসি টেংরা ১৬০০ টাকা, টেংরা ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা, কাচকি ৬০০ টাকা, পাঁচমিশালি ২২০ টাকা, রূপচাঁদা ১২০০ টাকা, বাইন ১২০০ থেকে ১৫০০ টাকা, দেশি কই ১ হাজার টাকা, মেনি ৭০০ টাকা, শোল মাছ ৬০০ থেকে ১ হাজার টাকা, আইড় ৬০০ থেকে ৯০০ টাকা, বেলে ৭০০ টাকা এবং কাইকলা বা কাইক্ক্যা ৬০০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..