1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মৌলভীবাজারে শহীদ দিবস পালন

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২০ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৫২২ বার পঠিত

স্টাফ রিপোটার: নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মৌলভীবাজারে স্থানীয় শহীদ দিবস পালিত হয়েছে। ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর দেশ স্বাধীন হওয়ার চারদিন পর ২০ ডিসেম্বর পাকিস্তানি বাহিনীর ফেলে যাওয়া মাইন বিস্ফোরণে ২৪ জন মুক্তিযোদ্ধা মারা যান। সোমবার (২০ ডিসেম্বর) দিবসটি পালন উপলক্ষে সকালে জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, জেলা প্রশাসন, জেলা পরিষদসহ বিভিন্ন সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে শহীদদের স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান। এ ছাড়া জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছে।

সকালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা,মৌলভীবাজার রাজনগর ৩ আসনের সংসদ সদস্য নেছার আহমদ,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক তানিয়া সুলতানা, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মিছবাউর রহমান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) হাসান মোহাম্মদ নাছের রিকাবদার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (জেলা বিশেষ শাখা) সুদর্শন কুমার রায়, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ জিয়াউর রহমান প্রমুখ। জানাযায়, ৮ ডিসেম্বর মৌলভীবাজার জেলা (তৎকালীন মহকুমা) শক্রমুক্ত হয়। তৎকালীন মহকুমা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে ওড়ানো হয় স্বাধীন বাংলার লাল-সবুজ পতাকা। মৌলভীবাজারবাসী দীর্ঘদিন ধরে ২০ ডিসেম্বরকে স্থানীয় শহীদ দিবস হিসেবে পালন করে আসছে।
’৭১ সালের এই দিনে বাড়িতে ফেরার উদ্দেশ্যে মুক্তিযোদ্ধারা মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে স্থাপন করা অস্থায়ী মুক্তিযোদ্ধা ক্যাম্পে জড়ো হতে থাকেন। সেখানে একটি কক্ষে শহরের বিভিন্ন জায়গায় মাটিতে পাকিস্তানি বাহিনীর পুঁতে রাখা মাইনগুলো উদ্ধার করে রাখা হয়েছিল। মুক্তিযোদ্ধারা ছিলেন বিজয় উল্লাসে ব্যস্ত। হঠাৎ উদ্ধারকৃত মাইন বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে বিদ্যালয় এলাকা। মুহূর্তের মধ্যে ২৪ জন মুক্তিযোদ্ধার দেহ ছিন্নবিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পরে এই ছিন্নবিচ্ছিন্ন দেহগুলো একত্রিত করে বিদ্যালয় মাঠের এক পাশে হিন্দু মুসলিম নির্বিশেষে সবাইকে সমাধিস্থ করা হয়। এর পর থেকে দিনটিকে স্থানীয় শহীদ দিবস হিসেবে পালন করেন মৌলভীবাজারবাসী।
এই দিনে যাঁরা শহীদ হয়েছিলেন, তাঁরা হলেন সুলেমান মিয়া, রহিম বক্স খোকা, ইয়ানূর আলী, আছকর আলী, জহির মিয়া, ইব্রাহীম মিয়া, আব্দুল আজিজ, প্রদীপ চন্দ্র দাস, শিশির রঞ্জন দেব, সত্যেন্দ্র দাস, অরুণ দত্ত, দিলীপ দেব, সনাতন সিংহ, নন্দ লাল বাউরী, সমীর চন্দ্র সেন, কাজল পাল, হিমাংশু পাল, জিতেশ চন্দ্র দেব, আবদুল আলী, নূরুল ইসলাম, মোস্তফা কামাল, আশুতোষ দেব, তরণী দেব ও নরেশ চন্দ্র ধর।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..