1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ১০:৩৬ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
* বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শনে সিলেটে প্রধানমন্ত্রী   *  বন্যা নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই, সরকার সব ব্যবস্থা নিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

যক্ষ্মায় প্রতিবছর ২৯ হাজার মানুষের মৃত্যু : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২ জুন, ২০২২
  • ৫৫ বার পঠিত

ডেস্ক রিপোর্ট :: স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, সংক্রামক রোগ যক্ষ্মায় দেশে প্রতিবছর নতুন করে তিন লাখ মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন। বর্তমানে এ রোগে বছরে ২৯ হাজার জনের মৃত্যু হচ্ছে। এই সংখ্যাটি কম নয়।

আজ বৃহস্পতিবার (২ জুন) রাজধানীর মহাখালীতে জাতীয় বক্ষ্যব্যাধি ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল ও নবনির্মিত ১৫ শয্যা বিশিষ্ট আইসিইউ (নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) সেন্টার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

জাহিদ মালেক জানান, আমাদের স্থাপনা ও যন্ত্রপাতি অনেক হয়ে গেছে। কিন্তু ডাক্তার-নার্সের অভাব রয়েছে। যেটা আমাদের প্রয়োজন। যন্ত্রপাতি অনেক, কিন্তু মেরামত হয় না।

করোনা মোকাবিলায় একদিনে ১ কোটি ২০ লাখ টিকা প্রয়োগের বিষয়টি বিবেচনায় নিলে বাংলাদেশ বিশ্বে এক নম্বর বলেও মন্তব্য করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, কোভিড নিয়ন্ত্রণ করে দক্ষিণ এশিয়ায় প্রথম স্থান অর্জন করেছি। আর সারা বিশ্বের মধ্যে পঞ্চম। আমরা এক কোটি ২০ লাখ টিকা এক দিনে দিয়েছি। সেদিকটি বিবেচনায় আমরা বিশ্বে এক নম্বর। আমরা সবাই মিলে কাজ করেছি বিধায় আমাদের এই অবস্থান। সবার সহযোগিতায় এটা সম্ভব হয়েছে।

স্বাস্থ্য খাতে বাংলাদেশকে আরও অনেক কাজ করতে হবে জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, এখনো আমাদের অনেক দূর যেতে হবে। অনেক কাজ করতে হবে। আমাদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনাও রয়েছে। স্বাস্থ্য খাতকে ভালো অবস্থানে নিতে হাসপাতাল তৈরি করাসহ বিভিন্ন প্রকল্প আমরা হাতে নিয়েছি। ইতোমধ্যে মেডিকেল ওয়েস্ট ম্যানেজমেন্টের প্রকল্প অনুমোদন হয়েছে।

এ সময় মন্ত্রী জানান, দেশের হাসপাতাল ব্যবস্থা ডিজিটালাইজ করার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের।

জাতীয় বক্ষব্যাধি ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালে নতুন করে ১৫টি আইসিইউ বেড উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে মোট আইসিইউ সংখ্যা হলো ২৫টি। এর আগে এক নম্বর রুমে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ছিল ১০টি। দুই নম্বর আইসিইউ রুমে নতুন করে সংযোজন হয়েছে ১০টি ও হাসপাতালটির অ্যাজমা ভবনের পাঁচ তলায় সংযোজন হয়েছে আরও পাঁচটি আইসিইউ বেড।

নতুন আইসিইউ বেড উদ্বোধন প্রসঙ্গে জাহিদ মালেক বলেন, নতুন আইসিইউ হাসপাতালে রোগীদের সেবায় নতুন দিক উন্মোচন করেছে। এর মাধ্যমে রোগীরা হাসপাতালটি থেকে আরও উন্নত সেবা পাবেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ডা. এবিএম খুরশিদ আলম, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. খুরশিদ আলম অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..