1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ০৬:৫৭ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
মৌলভীবাজারের ৫টি রেলওয়ে স্টেশন বন্ধ থাকায় এখন ভুতুরে বাড়ি: যাত্রী দুর্ভোগ চরমে: চুরি ও নষ্ট হচ্ছে রেলওয়ের মুল্যবান সম্পদ,নতুন বছরে দৃঢ় হোক সম্প্রীতির বন্ধন, দূর হোক সংকট: প্রধানমন্ত্রী. আজ রোববার উদযাপন হবে বই উৎসব. দুর্গম এলাকায় বিকল্প ব্যবস্থায় নতুন বই পাঠানো হবে: শিক্ষামন্ত্রী, নতুন বছরে নতুন শিক্ষাক্রম চালু হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী, নতুন আশা নিয়ে মধ্যরাতে বরণ করা হবে ২০২৩ সাল, সিডনিতে আতশবাজির মধ্য দিয়ে ‘নিউ ইয়ার’ বরণ, ইংরেজি নববর্ষ উদযাপনে পুলিশের কড়াকড়ি,আবারও প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা, সম্পাদক হলেন শ্যামল ,নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে কুয়াকাটায় পর্যটকের ঢল

কমলগঞ্জে ধলাই নদীর বেড়িবাঁধের জরাজীর্ণ অবস্থা

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৮ জুলাই, ২০২১
  • ১৩৫ বার পঠিত

প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ :: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার রহিমপুর ইউনিয়নের ধর্মপুর গ্রামে ধলাই নদীর বেড়িবাঁধ জরাজীর্ণ অবস্থায় রয়েছে। এলাকাবাসীর জোরালো দাবি সত্তে¡ও এখনো টেকসই বাঁধ নির্মাণের কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়নি। ফলে বর্ষা মৌসুমে বন্যায় বাঁধ ভেঙ্গে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতির আশংকা করছেন স্থানীয়রা।
সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, কমলগঞ্জ উপজেলার ১নং রহিমপুর ইউনিয়নের ধর্মপুর এলাকায় ধলাই নদীর প্রায় ২০০ মিটার বেড়িবাঁধ অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। নদীর বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে যেকোনো সময় বন্যায় প্লাবিত হতে পারে উপজেলার তিনটি ইউনিয়ন। নদীতে পানি স্বাভাবিকের চেয়ে বৃদ্ধি পেলে বাঁধ উপচে রহিমপুর, মুন্সীবাজার ও পতনঊষার ইউনিয়ন প্লাবিত হাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে এলাকাবাসীর আশঙ্কা প্রকাশ করছেন। জরুরী ভিত্তিতে পানি উন্নয়ন বোর্ড বেড়িবাঁধের কাজ না করলে যে কোনো মুহুর্তে বেড়িবাঁধ ভেঙ্গে লোকালয় প্লাবিত হতে পারে। এলাকাবাসী জানান, দ্রæত গতিতে যদি বেড়িবাঁধ মেরামত করা না হয় তাহলে বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে।
আলাপকালে স্থানীয় কৃষক শহীদ মিয়া, শামসুল মিয়া বলেন, বেড়িবাঁধ যদি ভেঙ্গে যায় তাহলে আমাদের ব্যাপক ক্ষতি হবে। ধর্মপুর গ্রামের বেলাল তরফদার বলেন, দীর্ঘদিন মেরামত না হওয়ায় ধলাই নদীর বাঁধের বেহাল দশা। নদীর পানি একটু বেশি হলে বাঁধ ভেঙ্গে এলাকার ভেতরে পানি প্রবেশ করবে। বাঁধ সংস্কার করা শিগগিরই প্রয়োজন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় কয়েকজন জানান, বাঁধ মেরামতের জন্য সরকারি অর্থ বরাদ্দ হয়েছে। তারপরও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বাঁধের সংস্কার কাজ করতে গড়িমসি করছে। এখন বর্ষা মৌসুমে বিপর্যয় নেমে আসতে পারে।
এ বিষয়ে রহিমপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান (স্বর্ণপদকপ্রাপ্ত) ইফতেখার আহমেদ বদরুল বলেন, ধলাই নদীর কয়েকটি স্পটে বেড়িবাঁধের জন্য টেন্ডার হয়েছে খুব শীঘ্রই কাজ আরম্ভ হবে।
পানি উন্নয়ন বোর্ড, মৌলভীবাজার এর উপ-সহকারী প্রকৌশলী সজীব পাল বলেন, বেড়িবাঁধের জন্য ঠিকাদার নিয়োগ করা হয়েছে আশা করি তাড়াতাড়ি সংস্কার কাজ শুরু হবে।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..