1. [email protected] : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. [email protected] : admi2017 :
  3. [email protected] : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ০৪:১৬ পূর্বাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
বিনোদন :: গান গাইতে গাইতে মঞ্চেই গায়কের মর্মান্তিক মৃত্যু!,  খেলার খবর : অনূর্ধ্ব-১৯ এশিয়া কাপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ, বিমানবন্দরে যুবাদের জানানো হবে উষ্ণ অভ্যর্থনা,

রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে পিএসজির জয়

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৩ আগস্ট, ২০২১
  • ২১১ বার পঠিত

ক্রীড়া ডেস্ক : শক্তি-সামর্থ্যে পিছিয়ে থাকা স্তাদ ব্রেস্তওয়ার বিপক্ষে শুরু থেকেই দাপট দেখায় পিএসজি। কিলিয়ান এমবাপে-ডি মারিয়া নৈপুণ্যে দুই গোলে এগিয়ে থেকে সহজ জয়ের পথেই ছিল দলটি।

কিন্তু দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে ম্যাচ জমিয়ে তুলে স্তাদ ব্রেস্তওয়া। তবে শেষ রক্ষা হয়নি। রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে তাদের হারিয়ে টানা তৃতীয় জয় পেল মাওরিসিও পচেত্তিনোর দল।

শুক্রবার রাতে লিগ ওয়ানের ম্যাচে ৪-২ গোলে জিতেছে পিএসজি। একটি করে গোল করেছেন কিলিয়ান এমবাপে, ডি মারিয়া, আন্দের এররেরা ও ইদ্রিসা গেয়ি। ব্রেস্তের গোল দুটি করেন ফাঁঙ্ক উনুবা ও স্টিভ মুনিয়ে।

প্রতিপক্ষের মাঠে বল দখলে রেখে অনুমিত আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে পিএসজি। প্রায় ৮০ শতাংশ সময় বল দখলে রাখা পিএসজি গোছানোর আক্রমণে ২৩তম মিনিটে এগিয়ে যায় ব্রেস্তের গোলকিক থেকে নিজেদের ডিফেন্স ঘুরে বল পান এমবাপে। তার ক্রস স্বাগতিকদের একজনের মাথায় লাগলে ডি বক্সের বাইরে পেয়ে যান এররেরা। তার বুলেট গতির ভলি ঝাঁপিয়ে ঠেকাতে পারেননি গোলরক্ষক। পোস্টে লেগে জড়ায় জালে।

৩৬তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন এমবাপে। দারুণ ক্রসে এই ফরোয়ার্ড খুঁজে নেন হাকিমিকে। তার হেডে ডি বক্সে বল পেয়ে শট করেন জর্জিনিয়ো ভেইনালডাম। ব্রেস্ত ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে প্রতিহত হলে ছুটে গিয়ে চমৎকার হেডে ফিরতি বল জালে পাঠান এমবাপে।

৪২তম মিনিটে অনেকটা খেলার ধারার বিপরীতে ব্যবধান কমায় ব্রেস্ত। প্রতি আক্রমণ থেকে স্টিভ মুনিয়ে খুঁজে নেন রোমাঁ ফেভারকে। পরে তার কোনাকুনি শট জালে জড়ায়।

দ্বিতীয়ার্ধেও দারুণ খেলে পিএসজি। যখনই বল পেয়েছে তখনই পিএসজির রক্ষণে ভীতি ছড়িয়েছে। এরফলে ৭৩তম মিনিটে গেয়ির আচমকা দূর পাল্লার শটে ব্যবধান বাড়ায়। তবে ৮৫তম মিনিটে আবার ব্যবধান কমিয়ে ম্যাচ জমিয়ে তুলে ব্রেস্ত। প্রতি আক্রমণ থেকে ফেভারের ক্রস বুক দিয়ে নামিয়ে নিচু শটে ঠিকানা খুঁজে নেন মুনিয়ে।

ঠেকাতে পারেননি নাভাস। এরপর পিএসজির রক্ষণে প্রচণ্ড চাপ তৈরি করে ব্রেস্ত। কিন্তু বেশি আক্রমণাত্মক হতে গিয়েই বিপদ ডেকে আনে। প্রতি আক্রমণে ৯০তম মিনিটে ব্যবধান বাড়িয়ে নেন ডি মারিয়া। চলতি মৌসুমে প্রথমবারের মতো নেমেই গোল পেলেন এই আর্জেন্টাইন মিডফিল্ডার। এরপরেই জয় নিশ্চিত হয় পিএসজির।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..