1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৯:৪৮ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
* বন্যাকবলিত এলাকা পরিদর্শনে সিলেটে প্রধানমন্ত্রী   *  বন্যা নিয়ে দুশ্চিন্তার কিছু নেই, সরকার সব ব্যবস্থা নিয়েছে : প্রধানমন্ত্রী

দৈনিক মৌমাছি কন্ঠ পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর বিউবো কোটি টাকার ভূমি উদ্ধার

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৩১ মে, ২০২১
  • ১০৮৯ বার পঠিত

স্টাফ রিপোটার: মৌলভীবাজার জেলার একমাত্র নিয়মিত দৈনিক মৌমাছি কন্ঠ পত্রিকায় একাধিকবার সংবাদ প্রকাশের পর বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোডে (বিউবো) মৌলভীবাজার বেজবাড়ী এলাকার বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে কর্তৃক ১৯৬৩ সালে অধিগ্রহণ করা সংরক্ষিত সরকারি কোটি টাকার ভূমি অবৈধ দখলকারীর বিরুদ্ধে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছেন স্থানীয় জেলা প্রশাসন। সরকারি প্রায় ১ কোটি টাকার ভূমি উচ্ছেদ করে উদ্ধারকৃত ভূমি সংশি¬ষ্ট বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোডের কর্তৃপক্ষের নিকট বুঝিয়ে দেয়া হয়। গতকাল ৩১ মে সকালে মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান এর নির্দেশে উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিচালনা করেন- জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মো: রুহুল আমিন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন- বিক্রয় ও বিতরন বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ হাবিবুল বাহার, সিলেট বিক্রয় ও বিতরন বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আব্দুল মতিন, সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী মো: সাইদুর রহমান ও মৌলভীবাজার মডেল থানার পুলিশ । বিউবো এর অভিযোগে জানা গেছে, স্থানীয় একজন প্রভাবশালী বিউবো দেয়াল নির্মানে বাঁধা ্এবং বিক্রয় ও বিতরন বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ হাবিবুল বাহারকে হুমকি ধামকি দিয়ে গত মার্চ মাসে শুরু হওয়া বিউবো এর কাজ বন্ধ করে দেন। এ ঘটনায় উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষকে লিখিত ভাবে অবগত করাসহ মৌলভীবাজার মডেল থানায় পৃথক দুইটি জি,ডি করেন। গত ২৭ মে মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক বরাবরে বিক্রয় ও বিতরন বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী তাঁহার দপ্তরের কর্মকর্তা কর্মচারীসহ সকলের নিরাপত্তা ও কাজের বিঘœ সৃষ্টির আইনি সহযোগীতা চেয়ে চিঠি পাঠিয়েছেন। প্রেরিত চিঠি থেকে জানা যায়, এল,এ কেইস নং-৫/৬৩-৬৪ সালের অধিগ্রহনকৃত ভূমিতে জেলা কার্যালয় প্রতিষ্টিত হয়। উক্ত ভূমিতে তত্ত¡াবধায়ক প্রকৌশলীর কার্যালয়, নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয়, ৩৩/১১ কেভি উপকেন্দ্র, পাম্প হাউস, মসজিদ, নির্বাহী প্রকৌশলীর বাংলা, স্টাফ কোয়াটার রয়েছে। দীর্ঘ দিন ধরে সংস্কার না হওয়ায় সীমনা পিলার, কাটা তারের বেড়া নষ্ট হওয়ার কারনে কেপিআই এলাকা হিসাবে বিউবো”র প্রাচীর নির্মানের কাজ সমাপ্তির পথে ছিল। বনশ্রী ওয়াপদা রোডের মরহুম আজলু মিয়ার পুত্র আলহাজ্ব আব্দুল বারী যুগ্ম জেলা জজ আদালত মৌলভীবাজার ৯/২০২১ ইং স্বত্ব মামলা কওে নিষেধজ্ঞা প্রার্থনা করেন। বিজ্ঞ আদালত কোন নিষেধজ্ঞা মঞ্জুর না করে মামলাটি সিনিয়র জজ আদালতে স্থনান্তর করেন। বর্তমান মামলা নং-১১৩/২০২১ স্বত্ব। আলহাজ্ব আব্দুল বারী বিউবো এর সীমানা ভূক্ত এস এ ১৪২০ দাগের ভূমি নালীশা ভূক্ত করে তার লোকজন সহযোগে বিউবো এর স্বত্ব দখলীয় ১৪৩০,১৪৩১ দাগের সীমানা প্রাচীর নির্মানে বাঁধা ও হুমকি প্রদর্শন করছে। বিক্রয় ও বিতরন বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ হাবিবুল বাহার মৌলভীবাজার মডেল থানার একটি জি,ডিতে বেজবাড়ি এলাকার ওয়াপদা রোডের (আহমেদ নিবাস) এর আব্দুল বারীর পুত্র সেলিম আহমেদের নাম উলে¬খ করে সাধারণ ডায়রি করেন। ডায়রি নং-৭৭২। মৌলভীবাজার মডেল থানায় অভিযোগে জানা যায়, মিউনিসিপালিটি মৌজার জেএল নং ১০৫ দাগ নং-১৪১৫,১৪১৬,১৪১৭,১৪২০,১৪২১,১৪২২,১৪২৫,১৪২৬,১৪২৮,১৪২৯,১৪৩০,১৪৩১, এর ৯.৪০ একর জায়গা কিছু অংশ আব্দুল বারীর পুত্র সেলিম আহমেদ জোর করে দখল করার জন্য ইতিপূর্বে বাঁশের বেড়া নির্মান করেন। এ ব্যাপারে নির্বাহী প্রকৌশলী আপত্তি জানালেও সে কোন বাঁধা না মেনে বেড়া নির্মান করেন। গত ১৬ মে আবারও লোকজন নিয়ে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের জমি মাটি ভরাট করতে থাকেন। গত মার্চ মাসে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড ১০ একর ৬১ শতক ভূমিতে দেয়াল নির্মানের কাজ শুরু করলে বেজবাড়ীস্থ ৩৩/১১ কেভি উপকেন্দ্রের নীচের ডালে বর্ষিজোড়া মৌজার ১৪৩০,১৪৩১ নং দাগের উপর রাতের অন্ধকারে অবৈধ ভাবে প্রভাবশালী মহল বেড়া নির্মানের চেষ্টা করে। এ ব্যাপারে বিউবো বিভাগ মৌলভীবাজার মডেল থানায় জিডি করেন এবং তার উধ্বর্তন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করেন। উক্ত জমি বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডে কর্তৃক ১৯৬৩ সালে অধিগ্রহণ করা হয়েছিল।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..