1. newsmkp@gmail.com : Admin : sk Sirajul Islam siraj siraj
  2. info@fxdailyinfo.com : admi2017 :
  3. admin@mkantho.com : Sk Sirajul Islam Siraj : Sk Sirajul Islam Siraj
  • E-paper
  • English Version
  • বৃহস্পতিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৬:১৪ অপরাহ্ন

ব্রেকিং নিউজ :
মৌলভীবাজারের ৫টি রেলওয়ে স্টেশন বন্ধ থাকায় এখন ভুতুরে বাড়ি: যাত্রী দুর্ভোগ চরমে: চুরি ও নষ্ট হচ্ছে রেলওয়ের মুল্যবান সম্পদ,নতুন বছরে দৃঢ় হোক সম্প্রীতির বন্ধন, দূর হোক সংকট: প্রধানমন্ত্রী. আজ রোববার উদযাপন হবে বই উৎসব. দুর্গম এলাকায় বিকল্প ব্যবস্থায় নতুন বই পাঠানো হবে: শিক্ষামন্ত্রী, নতুন বছরে নতুন শিক্ষাক্রম চালু হচ্ছে : শিক্ষামন্ত্রী, নতুন আশা নিয়ে মধ্যরাতে বরণ করা হবে ২০২৩ সাল, সিডনিতে আতশবাজির মধ্য দিয়ে ‘নিউ ইয়ার’ বরণ, ইংরেজি নববর্ষ উদযাপনে পুলিশের কড়াকড়ি,আবারও প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা, সম্পাদক হলেন শ্যামল ,নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে কুয়াকাটায় পর্যটকের ঢল

ভেজা চুলে ঘুমালে কি ক্ষতি হয়?

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১০ জুন, ২০২১
  • ১৮৫ বার পঠিত

লাইফস্টাইল ডেস্ক : দুপুরে গোসল করে চুল শুকানোর অভ্যাস বদলে গেছে অনেকেরই। দিনের প্রায় পুরো সময় অফিসে কাটাতে হয় বলে গোসলের পর্ব রাতে সেরে নিতে হয়।

দিনশেষে ক্লান্তি জেঁকে বসলে গোসলের পরে ঘুমিয়ে পড়তে মন চায়। ক্লান্তি কাটাতে কিংবা সতেজ হতে সাহায্য করে গোসল। কিন্তু আপনি যদি ভেজা চুলে ঘুমাতে চলে যান তবে কিছু সমস্যা দেখা দিতে পারে। ভেজা চুল নিয়ে ঘুমাতে গেলে চুলের কোন ক্ষতিগুলো হতে পারে তা জেনে নিন-

চুলে জট পড়া

নিয়মিত ভেজা চুলে ঘুমাতে যাওয়ার অভ্যাস করলে চুলে জট পড়তে পারে। কারণ ভেজা চুল বেঁধে ঘুমানো সম্ভব নয়। ফলে চুল খোলা রেখেই ঘুমাতে যেতে হয়। এ কারণে সকালে চুলে জট পড়া খুব স্বাভাবিক। সেই জট ছাড়াতে গিয়ে আবার চুল পড়া বা ছিঁড়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই ভেজা চুলে ঘুমাতে যাওয়ার অভ্যাস বন্ধ করা জরুরি।

চুল ভেঙে যাওয়া

আমাদের চুল ভেজা অবস্থায় সবচেয়ে দুর্বল থাকে। এসময় সহজেই ভেঙে যেতে পারে বা পড়ে যেতে পারে। তাই ভেজা অবস্থায় চুল আঁচড়ানোও ঠিক নয়। ভেজা চুল নিয়ে ঘুমাতে গেলে বালিশের সঙ্গে ঘষা লেগে চুল ভেঙে যেতে পারে। ফলে চুল প্রাণহীন ও রুক্ষ হয়ে পড়ে।

ফাঙ্গাল ইনফেকশন দেখা দিতে পারে

ভেজা চুল নিয়ে ঘুমাতে গেলে যেসব ক্ষতি হয় তার মধ্যে একটি হলো ফাঙ্গাল ইনফেকশন। মাথার ত্বক ও চুল ভেজা থাকার কারণে ঘুমানোর সময় বালিশের কাপড়েই তা শুকায়। ফলে মাথার ত্বকে বাসা বাঁধে বিভিন্ন ধরনের ব্যাকটেরিয়া। দেখা দেয় একাধিক ফাঙ্গাল ইনফেকশন। খুশকি এবং চুল পড়ে যাওয়ার সমস্যাও শুরু হয় সেখান থেকে।

ঠান্ডা লাগার সমস্যা

যাদের ঠান্ডা লাগার সমস্যা আছে তারা ভেজা চুলে ঘুমাতে যাওয়ার অভ্যাস বন্ধ করুন। কারণ এই অভ্যাসের কারণে সহজেই ঠান্ডা লেগে যেতে পারে। সেখান থেকে হতে পারে সর্দি, কাশি ইত্যাদি। মাথা যন্ত্রণা বা মাথা ধরার সমস্যা দেখা দেয়াও অস্বাভাবিক নয়। তাই ঠান্ডার সমস্যা থেকে বাঁচতে এই অভ্যাস বাদ দিন।

আপনার করণীয়

সম্ভব হলে রাতে গোসলের অভ্যাস বাদ দিন। অন্তত চুল ভেজানো থেকে বিরত থাকুন। হালকা গরম পানিতে হাত-পা ও শরীর ধুয়ে নিলে কিছুটা সতেজ অনুভব করবেন।

যদি সম্ভব হয় তবে সকালে কিংবা সন্ধ্যার দিকে গোসল সেরে চুল দ্রুত শুকিয়ে নিন। কোনোভাবেই ভেজা চুল নিয়ে ঘুমাতে যাবেন না।

অনেকে আরামের জন্য বালিশে সুতির কভার ব্যবহার করেন। তবে চুল ভালো রাখতে চাইলে সুতির বদলে ব্যবহার করুন সিল্কের কভার। এতে চুলে তুলনামূলক কম ঘষা লাগবে। ফলে চুল ছিঁড়ে কিংবা পড়ে যাওয়ার ভয় কমবে।

প্লিজ আপনি ও অপরকে নিউজটি শেয়ার করার জন্য অনুরোধ করছি

এ জাতীয় আরো খবর..